উৎসবমুখর পরিবেশে AHCAB বনভোজন-২০১৯ অনুষ্ঠিত

উৎসবমুখর পরিবেশে AHCAB বনভোজন-২০১৯ অনুষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: প্রতিবছরই বার্ষিক বনভোজনের আয়োজন করে থাকে এনিম্যাল হেলথ্ কোম্পানিজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (AHCAB)। আজ শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারী) রাজধানীর অদূরে গাজিপুরের কালিগঞ্জের উলুখোলায় অবস্থিত মেঘবাড়ী রিসোর্টে শীতকে হটিয়ে সৌহার্দের উষ্ণতা ভাগাভাগি করে করলো AHCAB পরিবারের সদস্যরা। বনভোজনের আনন্দে হারিয়ে গিয়েছিল দেশের এনিম্যাল হেলথ্ সেক্টরের পেশাজীবি ও তাদের পরিবারের সদস্যরা। বনভোজনে AHCAB এর নির্বাহি কমিটির সদস্য ছাড়াও সাধারণ সদস্য ও আমন্ত্রিত অতিথিরাও অংশ নিয়েছিলেন।

বনভোজনকে ঘিরে সকাল ১০টা থেকেই অনুষ্ঠানস্থলে শুরু হয় অতিথিদের প্রবেশ। নবীন-প্রবীন সকলের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছিল পিকনিক স্পট। AHCAB মহাসচিব ডা. মো: কামরুজ্জামান জানান, ‘প্রায় ছয় শতাধিক মানুষের আয়োজন করা হয়েছে এবারের বনভোজনে। সবাই ঘুরছে, মজা করছে, গান বাজনা উপভোগ করছে। এটাই আনন্দ।’ তিনি জানান, দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে।

এবারের পিকনিকটি ছিলো বিগত বছরগুলোর তুলনায় বেশ উপভোগ্য এমনটাই জানালেন আহকাবের অধিকাংশ সদস্যবৃন্দ। এতে ছিলো নানা আয়োজন; ক্রিকেট থেকে শুরু করে গ্রামীণ ঐহিহ্যের ছোঁয়া ছিল প্রতিটি ইভেন্টে। হাটে হাঁড়ি ভাঙ্গার মতো খেলা থেকে বড়দের কক-ফাইটটি ছিলো বেশ উপভোগ্য। শিশুরা বিনোদনের জন্য পেয়েছে আনন্দের এক ভিন্ন জগত। বড়রাও যেন খুঁজে পেয়েছিলেন তাঁদের শৈশব। আনন্দের একেকটি মুহূর্ত, সেলফি তোলা আর ফেসবুকে তা পোস্ট করার হিড়িক।

AHCAB সভাপতি ডা. এম নজরুল ইসলাম বলেন, বছরজুড়ে টানা কাজে ক্লান্ত শ্রান্ত একঘেঁয়েমি থেকে পরিত্রাণের লক্ষ্যে প্রতি বছরই AHCAB আয়োজন করে বার্ষিক বনভোজনের। সারাবছর এ দিনটির জন্য উন্মুখ হয়ে থাকে সকল সদস্য।

AHCAB-এর সকল সদস্য ও তাদের পরিবার-পরিজনের অংশগ্রহণে আনন্দমুখর হয়ে উঠেছিল এবারের বনভোজন। একদিনের আনন্দ উল্লাসের মুহূর্তেই কেটে যায় বছরজুড়ে লেগে থাকা ক্লান্তির ছাপ। বনভোজনের আনন্দ শেষে নতুন উদ্যমে আবারো শুরু হবে আবার কর্মব্যস্ততা।

wso shell Indoxploit shell fopo decode hızlı seo googlede üst sıraya çıkmak seo analiz seo nasıl yapılır iç seo nasıl yapılır evden eve nakliyat halı yıkama bmw yedek parça hacklink panel bypass shell hacklink böcek ilaçlama paykasa fiyatları hacklink Google