নওগাঁয় আবারও একটি নীলগাই উদ্ধার

কাজী কামাল হোসেন, নওগাঁ: নওগাঁর পত্নীতলা সীমান্ত থেকে আবারও একটি নীলগাই (পুরুষ) উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। গতকাল সোমবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার নির্মল ইউনিয়নের হাট-শাওলি কালুপাড়া গ্রামের একটি আম বাগান থেকে নীলগাইটি উদ্ধার করা হয়। তবে উদ্ধারের পরপরই এটি নিতে আসে বিজিবি। কিন্তু স্থানীয়দের সঙ্গে বাগবিতন্ডার পর সেটি বর্তমানে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের হেফাজতে রয়েছে।

পত্নীতলার নির্মল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, সীমান্তবর্তী এলাকায় একটি আম বাগানে নীলগাইটি ঘোরাফেরা করছিল। স্থানীয় কিছু যুবক বিরল এ প্রাণীটিকে আটক করে আমাকে সংবাদ দেয়। সকাল ৮টার দিকে ঘটনাস্থলে যায়। পরে পতœীতলা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি-১৪) সদস্যরা সংবাদ পেয়ে নীলগাইটি নিতে আসে। কিন্তু যেহেতু আমার এলাকার মধ্যে এটি উদ্ধার করা হয়েছে তাই পরিষদে নিতে চাইলে তাদের সঙ্গে বাগবিতন্ডা হয়। এরপর বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) অবগত করা হয়। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজশাহী বন কর্মকতা আমাকে ফোন দিয়ে জানান নীলগাইটি আমার হেফাজতে রাখার জন্য। তারা বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এসেছে নীলগাইটি নেয়ার জন্য। তবে ধারণা করা হচ্ছে ভারত থেকে চোরাই পথে নীলগাইটি নিয়ে আসা হয়েছে অথবা ভুল করে বাংলাদেশ প্রবেশ করেছে।

এ ব্যাপারে পতœীতলা বিজিবি-১৪ সিও লে. কর্নেল জাহিদ হাসান জানান, চেয়ারম্যানের সঙ্গে এ ধরনের কোনো ঘটনা আমার জানা নেই। তবে যেহেতু ফাঁকা মাঠের মধ্য দিয়ে আসার সময় আমাদের সদস্যরাই দেখেছে তখন হয়ত এটিকে ধরতে পারেনি। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী নীলগাইটি আটক করেছে। যেহেতু প্রাণীটি অবৈধ তাই আইনগতভাবে চেয়ার‌্যমান এটি নিয়ে যেতে পারেন না। এ বিষয়ে সামাজিক বনবিভাগ রাজশাহীর পাইকবান্দা রেঞ্জের রেঞ্জ অফিসার ফরহাদ জাহান জানান, বিরল প্রজাতির নীল গাইটি ইউনিয়ন পরিষদের তত্বাবধায়নে ছিল। বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগ রাজশাহী এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবগত করার পর তারা এসেছেন। নিয়ম অনুযায়ী বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগ রাজশাহীর কাছে উক্ত বিরল প্রজাতির ভারতীয় নীল গাইটি হস্তান্তর করা হয়েছে।  

উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত ২২ জানুয়ারি জেলার মান্দা উপজেলার নুরুল্লাবাদ ইউনিয়নের জোতবাজার এলাকা থেকে একটি নীলগাই উদ্ধার করে এলাকাবাসী। পরে বন বিভাগের মাধ্যমে নীলগাইটি রাজশাহী বন্যপ্রাণী ও পরিচর্যা কেন্দ্রে পাঠানো হয়। বর্তমানে সেটি দিনাজপুর রামসাগরে জাতীয় উদ্যানে রয়েছে।

escort izmir