‘বাংলাদেশে রন্ধনশালা ও হোটেলিয়ারদের ভূমিকা’ বিষয়ক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আবদুল মুনিম খান: বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশের খাবার তুলে ধরতে গত ১৪-১৬ ফেব্রুয়ারি ৩ দিনব্যাপী  রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে ‘ফুড অ্যান্ড হসপিটালিটি বাংলাদেশ এক্সপো-২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়। প্রদর্শনীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আখতার-উজ-জামান খান কবির, বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল হসপিটালিটি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এইচ.এম. হাকিম আলী, বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল হসপিটালিটি অ্যাসোসিয়েশনের উপদেষ্টা প্রফেসর মাসুদ এ. খান, বাংলাদেশ রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতির সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক খন্দকার রুহুল আমিন প্রমুখ।

‘ফুড অ্যান্ড হসপিটালিটি বাংলাদেশ এক্সপো’ প্রদর্শনীতে বাংলাদেশসহ ভারত, মালয়েশিয়া, মেসিডোনিয়া, থাইল্যান্ড, চীন, ইতালি ও স্পেন থেকে ৭ দেশের এক্সিবিটর, ১৫০টি ব্র্যান্ড, ২০০ জন আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি এবং ৫০ জন হোস্টেড বায়ার অংশ নেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ‘শুধু ঢাকাই বাংলাদেশ নয়, বাংলাদেশের অন্যান্য এলাকা নিয়েও আমাদের ভাবতে হবে। পর্যটন শিল্প বিকাশের জন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ দেশের অন্যান্য জেলায় কাজ করে যেতে হবে।’

ভূমিমন্ত্রী জানান, এধরণের প্রদর্শনী শুধু ঢাকা নয়, ঢাকার বাইরেও করা উচিৎ। বিদেশে এ ধরণের প্রদর্শনী আয়োজনের পরিকল্পনার কথা শুনে মন্ত্রী আয়োজকদের প্রশংসা করেন। সেইসাথে আরও বেশি সংখ্যক বিদেশীদের এ ধরণের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য আয়োজকদের পরামর্শ প্রদান করেন। মন্ত্রী মনে করেন যে, বিনিয়োগ সম্প্রসারণে পারস্পরিক সম্পর্ক এবং বোঝাপড়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়াও বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতগণ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ।

‘ফুড অ্যান্ড হসপিটালিটি বাংলাদেশ এক্সপো’তে সমাপনী দিবসে বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে ‘বাংলাদেশে রন্ধনশালা ও হোটেলিয়ারদের ভূমিকা’ বিষয়ক গোলটেবিল বৈঠক গত শনিবার ১৬ ফেব্রুয়ারি বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়। বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল হসপিটালিটি অ্যাসোসিয়েশনের উপদেষ্টা প্রফেসর মাসুদ এ. খান এর সভাপতিত্বে প্যানেল স্পিকার হিসেবে বক্তব্য রাখেন টনি খান কালনারি ইনস্টিটিউট এবং হোটেল ম্যানেজমেন্টের প্রিন্সিপাল টনি খান, দুই বাঙলার জনপ্রিয় স্যাটেলাইট চ্যানেল তারা টিভি নিউজের উপদেষ্টা, বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক, কলাম লেখক, গবেষক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ইউনিভার্সিটি অব কুমিল্লার অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আবদুল মুনিম খান, বাংলা টিভির সিওও সোহেল এইচ. এবং অন্যান্য বিশিষ্ট হোটেলিয়ারগণ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি প্যানেল বক্তাগণ বাংলাদেশে রন্ধনশিল্পের সুযোগ-সুবিধা ও চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে পরামর্শমূলক কথা বলেন এবং বাংলাদেশে হোটেল-রেষ্টুরেন্টে খাদ্যদ্রব্যের অহেতুক অপচয় রোধে একে অন্যকে বোঝাতে থাকেন তাহলে অনেক হতদরিদ্র মানুষের খাদ্যপানীয় ও অন্নের সংস্থান হয়ে এসডিজি বাস্তবায়নে দেশ থেকে চরম ক্ষুধা ও দারিদ্র্য তথা খাদ্য সংকট অনায়াসে দূরীভূত হতে পারে বলে অভিমত প্রকাশ করা হয়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণভাবে বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং এর লক্ষ্য অর্জনের জন্য সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টা প্রসারিত করার জন্য জোরালো ভূমিকা পালনের উদাত্ত আহবান জানানো হয়। বাংলাদেশে বাংলাদেশ পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে অতিশীঘ্রই  বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন একটি গ্র্যান্ড কনফারেন্স আয়োাজন করবে বলে আশাপ্রকাশ করা হয়।

উল্লেখ্য যে, দেশের পর্যটন শিল্পকে ভিন্নমাত্রা দিতে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে প্রথমবারের মত এ ‘ফুড অ্যান্ড হসপিটালিটি বাংলাদেশ এক্সপো’-২০১৯ এর সফল আয়োজন করেছে যৌথভাবে বাংলাদেশ  ইন্টারন্যাশনাল হসপিটালিটি অ্যাসোসিয়েশন (বিহা) এবং ওয়েম বাংলাদেশ লিমিটেড ও বেটার বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন (বিবিএফ)।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আবদুল মুনিম খান: প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, ইনস্টিটিউট অব ল্যাংগুয়েজ স্টাডিজ। প্রফেসর ও এডভাইজার, ইসলামিক স্টাডিজ ও ইসলামের ইতিহাস বিভাগ, স্কুল অব লিবারেল আর্টস, ইউনিভার্সিটি অব কুমিল্লা, উত্তরা, ঢাকা। উপদেষ্টা সম্পাদক, পায়রা.নিউজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পরিক্রমা। গবেষক, কলাম লেখক, বাংলাদেশ বেতারের বহির্বিশ্ব কার্যক্রমের সংবাদ পাঠক, টেলিভিশন অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ও আলোচক। This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it.

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort