ঝিনাইদহ ও মাগুরায় গ্রামীণ পর্যায়ে কৃষক সংগঠনের উদ্যোগে বর্ষবরণ

এগ্রিলাইফ ডেস্ক:১লা বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা, ১৪ এপ্রিল ২০১৯ইং, বর্ষবরণ ১৪২৬ উপলক্ষে উন্নয়ন ধারার সহযোগিতায় গড়ে ওঠা ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা, সদর ও মাগুরা সদর উপজেলার স্বাধীন কৃষক সংগঠনের উদ্যোগে গ্রামীন পর্যায়ে প্রত্যন্ত কৃষক জনপদে পালিত হলো বর্ষবরণ। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের বেতাই স্কুল মাঠ, শৈলকুপা উপজেলার ফুলহরি ইউনিয়নের ভগবাননগর, হাটফাজিলপুর বাজার এবং মাগুরা সদর উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর বলফিল্ডে কৃষক সংগঠনের সদস্যসহ হাজারো জনগনের অংশগ্রহণে উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হলো বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ।

বাংলা সালের জন্মলগ্ন থেকেই নববর্ষের উৎসব গ্রাম বাংলার জনজীবনের সাথে ওতোপ্রতোভাবে জড়িত। ফলে গ্রামের সকল শ্রেনি-পেশার মানুষ বিশেষ করে কৃষকদের জন্য দিনটি বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। বাংলার লুপ্তপ্রায় ও চিরায়ত লোকসংস্কৃতির চর্চা ও সংরক্ষণের লক্ষ্যে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের মঙ্গল শোভাযাত্রায় কৃষক-কৃষাণী, গ্রমীণ বর-বধু ও গ্রামীন সাজসহ গরুর গাড়ির সুসজ্জিত বহর এলাকার জনমানুষের মনে আনন্দের জোয়ার আনে। এছাড়া ছিল পান্তা খাওয়া, গ্রামীণ খেলাধুলা এবং জারি ও লালনগান সহ বর্ষবরনের নানা আয়োজন। ঝিনাইদহ ও মাগুরা এলাকার কৃষক সংগঠনের সদস্যসহ অত্র এলাকার হাজারো নারী-পুরুষ ও শিশু-কিশোর এ সকল অনুষ্ঠান উপভোগ করে এবং অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।

লোকসংস্কৃতির চর্চা, ঐতিহ্যবাহী খেলা এবং বাঙালি খাদ্য সংস্কৃতিকে টিকিয়ে রাখার দীপ্ত প্রয়াসেই কৃষক সংগঠনের এ নানবিধ আয়োজন। গ্রামীন কৃষক জনগোষ্ঠী আবহমান বাংলার বাঙালি সংস্কৃতির ধারক ও বাহক এবং তাদের উন্নয়নের মধ্যেই নিহিত আছে দেশের সার্বিক উন্নয়ন।

escort izmir