ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুর কৃষকরা গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষে আগ্রহী হচ্ছেন

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ লাভজনক হওয়ায় হরিণাকুন্ডুর স্থানীয় চাষিদের মধ্যে দিনদিন আগ্রহ বাড়ছে। টমেটোর ফলন এবং বাজারমূল্য দুটিই ভালো হওয়ায় তারা বেশ আনন্দিত। কন্যাদহ গ্রামের কৃষক মো: মতিয়ার রহমানের মতে একটু যত্ন করলেই এ চাষে লাভ করা সম্ভব, এছাড়া গোপিনাথপুর গ্রামের চাষী এমদাদ আগামী বছরও চাষ করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বর্তমান বাজার দর অনুযায়ী হরিণাকুন্ডুতে প্রতি কেজি ৮০ টাকা দরে গ্রীষ্মকালীন টমেটো বিক্রি করছেন কৃষকরা।

গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ সম্পর্কে হরিণাকুণ্ডু উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জনাব আরশেদ আলী চৌধুরী বলেন, উপপরিচালক ডিএই, ঝিনাইদহ জনাব জিএম আব্দুর রউফ এর নির্দেশনায় উপজেলার প্রতিটি ব্লকে উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ করা হচ্ছে। হরিণাকুণ্ডু উপজেলা কৃষি অফিস থেকে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ বিষয়ে চাষী ভাইদের প্রয়োজনীয় কারিগরী পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।

সারা বছর সবজির চাহিদা পূরণ করতে গ্রীষ্মকালীন উদ্ভাবিত বারি-৪ জাতের টমেটো চাষ করতে পরামর্শ দেন তিনি। সাদা পলিথিনের ছাউনি দিয়ে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ খুবই সহজ। বারি হাইব্রীড টমেটো ৪ বৈশিষ্ট্য :
১। গ্রীষ্মকালীন (উচ্চ তাপ সহিষ্ণু) জাত।
২। ফল অনেকটা কুল বড়ই আকৃতির লাল রংয়ের।
৩। ব্যাক্টেরিয়া জনিত ঢলে পড়া রোগ সহনশীল।
৪। ফলের গড় ওজন ৫০ গ্রাম।

বপনের সময় :
মে-জুলাই (গ্রীষ্ম-বর্ষাকালে)  
সেপ্টেম্বর- অক্টোবর (শীতকালে)
ফল ধারনের ৩৫ দিনের মধ্যে ফল সংগ্রহ করা যায়

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort