একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়ন সম্ভব-এলজিআরডি মন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট:স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, দেশের সুষম উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূল স্রোতে নিয়ে আসতে হবে। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ভাগ্যোন্নয়ন সম্ভব। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পকে সামাজিক ও অর্থনৈতিক মুক্তির আন্দোলন হিসেবে গ্রহণ করতে হবে।

৩০ আগস্ট বৃহস্পতিবার সচিবালয়স্থ স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে ‘একটি বাড়ি একটি খামার (৩য় সংশোধিত)’-প্রকল্পের জাতীয় স্টিয়ারিং কমিটির ৪র্থ সভায় সভাপতিত্বকালে এলজিআরডি মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ, এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মোঃ আবুল কালাম আজাদ, সংসদ সদস্য বেগম নাসিমা ফেরদৌসী, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব এস এম গোলাম ফারুকসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও দপ্তর প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।
 
মন্ত্রী বলেন, এই প্রকল্প দারিদ্র্য বিমোচনের মূল চালিকা শক্তি। সামাজিকভাবে ফলাফল পেতে স্থানীয় সরকারের সকল পর্যায়ের নির্বাচিত প্রতিনিধিগণকে প্রকল্পের সাথে সম্পৃক্ত করে একযোগে কাজ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, এই প্রকল্পটি সারা পৃথিবীতে একটি ইতিবাচক প্রকল্প। এ প্রকল্পের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণের বিপরীতে ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের ধারণা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে-যা মানুষকে দারিদ্র্যের দুষ্টচক্র থেকে বের করে উন্নয়নের মূলস্রোতে নিয়ে আসছে। দেশের গ্রামীণ অর্থনীতিতে যে প্রাণের সঞ্চার হয়েছে তাতে এই প্রকল্পের ভূমিকা রয়েছে। প্রতিটি গ্রামে প্রকল্পের সুবিধা পৌঁছে দিতে হবে।
 
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেন, জাতীয় পর্যায়ের একটি প্রোগ্রাম হিসেবে এ প্রকল্পকে পরিচালনা করতে হবে। প্রতিটি মানুষ যাতে ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে পারে সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে।-ছবি ও সংবাদ সূত্র-পিআইডি

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort