বাকৃবিতে ত্রিভুজের অনবদ্য পরিবেশনা

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) সাংস্কৃতিক সংগঠন ত্রিভুজের সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ত্রয়ীর ১৩ তম পর্ব মঞ্চস্থ হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন মিলনায়তনে ওই সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই সম্প্রতি ঘটে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচাচের্র এক মসজিদে হামলার আলোকে তুলে ধরা হয় একটি ভিন্নধর্মী পরিবেশনা। পরিবেশনাটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিলো সন্ত্রাসীদের কোনো জাত-ধর্ম নেই। পরবর্তীতে হামলায় নিহত বাকৃবির প্রাক্তন শিক্ষক কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবদুস সামাদ স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর ত্রিভুজের সদস্যরা দর্শকদের মাঝে উপস্থাপন করে দেশাত্মবোধক গান। আসন্ন বৈশাখকে বরণ করে নিতে মঞ্চায়িত করা হয় বৈশাখী নৃত্য। অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ ছিল রম্যরসাত্মক দলীয় অভিনয় ‘ট্যালেন্ট হান্ট’। এতে অভিনয় করে অর্জুন, উৎস, হিমা, শীতশ্রী, সাজ্জাদ, জয়াসহ আরও অনেকে। একে একে দলীয় নৃত্য, গান, খন্ডনাটক দিয়ে দর্শকদের মাতিয়ে রাখা হয় অনুষ্ঠানের পুরো সময় জুড়ে। এছাড়াও একটি খন্ডনাটকের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নানা অসংগতি ও ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরা হয়। এসময় প্রায় আড়াই হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পরিপূর্ন ছিল মিলনায়তন।

সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাউফুর রাহীম লিমনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. ছোলায়মান আলী ফকির, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক, সহকারী প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ড. তানভীর রহমান, সংগঠনটির সহ-সভাপতি সহযোগী অধ্যাপক ড. আলেয়া ফেরদৌসী ও প্রভাষক মো. রাসেল, বাকৃবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সবুজ কাজী, সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেলসহ ত্রিভুজের প্রাক্তন সদস্যরা।

‘সুপ্তকে বিকশিত করাই আমাদের লক্ষ্য’ শ্লোগান নিয়ে ২০০৩ সালের ১৪ এপ্রিল প্রতিষ্ঠা লাভ করে ত্রিভুজ। প্রতি বছর ‘ত্রয়ী’ নামে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংগঠনটি। বর্তমানে সংগঠনটির সদস্য প্রায় ৬০ জন।

escort izmir