বাকৃবি প্রতিনিধি:আগে কৃষকরা মাছ চাষে ব্যবহার করতেন বিভিন্ন ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক। কিন্তু অ্যান্টিবায়োটিক মানব শরীরের জন্য ক্ষতিকর হওয়ায় এর বিকল্প হিসেবে কৃষকরা প্রোবায়োটিক ব্যবহার শুরু করেন। আর প্রোবায়োটিক হলো কিছু উপকারী ব্যাকটেরিয়া যা অ্যান্টিবায়োটিকের বিকল্প হিসেবে কাজ করে। কিন্তু দেশে ব্যবহৃত সেই প্রোবায়োটিকেও মিলছে ভেজাল। শুক্রবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) আন্তজার্তিক অতিথি ভবনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে গবেষকরা এসব তথ্য জানান।  

কৃষিবিদ সৈয়দ মো: মাসাদুল হাসান আকিক:পুড়ছে কৃষক। জ্বলছে কৃষকের ক্ষেত। ফসলের দাম না পেয়ে কৃষক ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনেক কৃষক। অতীতে এমনটি আমরা কখনও দেখেনি। একজন কৃষিবিদ হিসেবে আমার যেটা মনে হয়, সরকারের কৃষকের কল্যাণে সব ধরণের সুবিধা চালু রয়েছে। তাহলে কেন এমন হচ্ছে? মধ্যস্বত্বভোগীদের কারণেই এমন খারাপ অবস্থা পার করতে হচ্ছে কৃষকদের।

আবুল বাশার মিরাজ:প্রিয় এইচএসসি ভাইয়া-আপুরা। ক দিনের মধ্যেই তোমাদের পরীক্ষা শেষ হবে। তবে তোমরা এখনও অনেকেই সিদ্ধান্ত হীনতায় ভুগছো। কি করবে, কোন কোচিং করবে, কোথায় করবে ইত্যাদি? তোমরা জানো দেশে আছে ৮ টি সরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। কৃষিতে পড়লে বিসিএসে টেকনিক্যাল ক্যাডার, কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি পাওয়া খুবই সহজ। আর এ বছর গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। অর্থাৎ একই প্রশ্নে পরীক্ষা হবে সবার। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রস্তুতি অনেকটায় মেডিক্যালের মতই। তবে পাশাপাশি গণিতের প্রস্তুতি না থাকলে চ্যান্স পাওয়া যাবে না।

বাকৃবি প্রতিনিধি:ফসলের নায্য দাম না পেয়ে কৃষক পাকা ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদও করেছেন অনেকে। শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষেরাও কৃষকদের চলমান আন্দোলনে যুক্ত হয়েছেন। কৃষকদের এ সমস্যাটি কিভাবে লাঘব করা যেতে পারে, জানতে চাইলে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) কৃষি শক্তি ও যন্ত্র বিভাগের সহযোগী অধ্যপক ড. মো. হামিদুল ইসলাম এগ্রিলাইফ টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আধুনিক কৃষি যন্ত্র ব্যবহারেই ধানের উৎপাদন খরচ কমানো সম্ভব।

ডা: আরিফ আহমেদ (হিল্লোল): সর্বশেষ ২০১৬, মার্চে যখন আমার প্রানের বিদ্যাপিঠ বর্তমান "চিটাগাং ভেটেরিনারী এন্ড এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়" এ যাই তখন এর আশে পাশের পাহাড়গুলি চোখে পড়েনি। অথচ একসময় যখন ওখানকার ছাত্র ছিলাম তখন এই বিদ্যাপিঠের চারপাশ ঘিরে ছিল ছোট বড় অনেক পাহাড়।

গবেষণায় ড. মোছা: ফারহানা শারমিন এবং সার্বিক তত্তাবধানে ড. নাথু রাম সরকারঃ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে কৃষির ভূমিকা অনস্বীকার্য। খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তার বিষয়টি অধিক জনসংখ্যার এ দেশে কৃষির সাথে সরাসরি জড়িত। এছাড়াও দারিদ্র বিমোচন, জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে কৃষি খাতটি আধিক সম্পর্কযুক্ত। বিগত ২০-২৫ বছরে হাঁস-মুরগি পালনের এই পেশাটি ক্রমাগতভাবে পরিবর্তন হয়ে বাণিজ্যিক বা শিল্পের আকার ধারণ করেছে। এদেশে ১ জন মানুষ সারা বছরে খেতে পারে মাত্র ৯৫ টি ডিম যেখানে বছরে ১ জন মানুষের কমপক্ষে প্রতি সপ্তাহে ২টি করে মোট ১০৪ টি খাওয়া উচিত (প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর’২০১৮)।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort