ভেষজ গুণ সম্পন্ন মসলা ‘ডিল’ নিয়ে গবেষণা

শেকৃবি প্রতিনিধিঃ এপিয়েসি গোত্রের উচ্চ ভেষজ গুণ সম্পন্ন মসলা জাতীয় ফসল “ডিল” বা সলুক যার বৈজ্ঞানিক নাম এনেথাম গ্রেভিউলেনস। এটি ইউরেসিয়ার বিভিন্ন দেশে ব্যাপকভাবে চাষ করা হয়। এর কচি পাতা, কান্ড কিউলিনারী হার্ব হিসেবে ব্যবহৃত হয় এবং বীজ বিভিন্ন খাবার তৈরিতে সুগন্ধী মসলা হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এর কচি পাতা, কান্ড বা বীজ থেকে সংগৃহীত তেল খাদ্য, পারফিউম, সাবান ও ভেষজ ইউনানি ওষুধ তৈরির শিল্পে ব্যবহৃত হয়।

এতে রয়েছে প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেড, ফসফরাস, আয়রণ, ম্যাগনেসিয়াম, সোডিয়াম এবং পটাসিয়াম। তাছাড়া এতে রিবোফ্লাবিন, নিয়াসিন, এন্টিঅক্সিডেন্ট, আলফা টোকফেরল ও কোয়ারসিটিন বিদ্যমান যা কোলেস্টেরল কমায়, ক্যান্সার প্রতিরোধী, পেটের পিঁড়া ও অনিদ্রার ক্ষেত্রে অত্যন্ত ভালো কাজ করে।

জিরার ন্যায় দেখতে মশলাটি আমাদের দেশে ‘সলুক’ নামে পরিচিত। দেশে প্রথমবারের মতো এটি নিয়ে গবেষণা করছেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র হুমায়ুন কবীর।

তিনি জানান, দেশের একাধিক স্থানে ডিল চাষ হলেও এর পরিচিতি ও ব্যবহার নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে। এর উৎপাদনের সাথে সংশ্লিষ্ট কৃষি কর্মকর্তা ও কৃষকেরা একে জিরা নামে প্রচার করে অনেকের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করেছেন এবং অধিকাংশই এর ব্যবহার সম্পর্কে জানেন না। উচ্চ পুষ্টি ও ভেষজ গুণ থাকায় এই সুগন্ধী মসলা ফসলের অনেক ব্যবহার রয়েছে। ইউরোপ ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশে এটি প্রধানত কিউলিনারী হার্ব হিসেবে এর কচি পাতা ও কান্ড মাছ, মাংস রান্নায় এবং সালাদ, স্যুপে ব্যবহার করা হয়। হুবুহু জিরার ন্যায় দেখতে এবং গন্ধযুক্ত এর বীজের গুঁড়া রান্নায় ব্যবহার করা যায় এবং পারফিউম ও সাবান তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। আমাদের দেশে এর ফলন খুব ভালো। এর উচ্চ পুষ্টি গুন ও বহু ব্যবহারের জন্য আমরা এটি নিয়ে গবেষণা করছি এবং অধিকতর গবেষণার দাবি রাখে।

গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাত সোলাইমান বলেন, ডিল ও জিরা নিয়ে যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছিল সেটা এই গবেষণার মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবং সেই সাথে এর উচ্চ পুষ্টি ও ভেষজ গুণ এর কারণে এর বহু ব্যবহার সম্পর্কে সেচতনতা সৃষ্টি হবে এমনটা আশা করছি। আশা করি এর গুণাগুণ ও ব্যবহারবিধি সম্পর্কে জানতে পারলে এর বাণিজ্যিক চাষাবাদ সম্ভব হবে।  সেক্ষেত্রে কিউলিনারী হার্ব বা মসলা হিসেবে এটি নতুন মাত্রা যুক্ত করবে। তাছাড়া এর উজ্জ্বল ফলের প্রতি নান রকম উপকারী পোকা আকৃষ্ট হয়, বিশেষ করে এর জমিতে মধুচাষ করা সম্ভব। আমরা এর বীজের রাসায়নিক উপাদান বিশ্লেষণ করবো যা এর গবেষণায় নতুন মাত্রা যুক্ত করবে।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort