মিল মালিক ও চালকল মালিকদের সিন্ডিকেটেই খারাপ অবস্থা পার করতে হচ্ছে কৃষকদের

কৃষিবিদ সৈয়দ মো: মাসাদুল হাসান আকিক:পুড়ছে কৃষক। জ্বলছে কৃষকের ক্ষেত। ফসলের দাম না পেয়ে কৃষক ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনেক কৃষক। অতীতে এমনটি আমরা কখনও দেখেনি। একজন কৃষিবিদ হিসেবে আমার যেটা মনে হয়, সরকারের কৃষকের কল্যাণে সব ধরণের সুবিধা চালু রয়েছে। তাহলে কেন এমন হচ্ছে? মধ্যস্বত্বভোগীদের কারণেই এমন খারাপ অবস্থা পার করতে হচ্ছে কৃষকদের।

খুবই সত্য, যেভাবেই হোক সমস্যা একটি হয়েছে। সমস্যাটির সমাধানও একদিনে করা যাবে না। তাই সরকারের কৃষি মন্ত্রালয়ের পাশাপাশি সব শ্রেণীপেশার মানুষের এগিয়ে আসতে হবে। এ অবস্খা উত্তরণের জন্য সার, বীজ, কৃষি যন্ত্রপাতি, সেচ ভর্তুকি আরও বৃদ্ধি করতে হবে। কৃষকদের নিকট থেকে সরাসরি ধান কেনার যে কর্মসূচী সেটা যথাযথভাবে পালন করতে হবে। এক্ষেত্রে সরকারের কঠোর মনিটরিং চালু করতে হবে। এক্ষেত্রে সেনাবাহিনীকেও কাজে লাগানো যেতে পারে। আমার যেটা মনে হয়, খাদ্য বিভাগের দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী ও রাজনৈতিক লেবাসধারীদের জন্যই সরকারের এ সুফল কৃষকেরা পাচ্ছেনা। এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষকে আরো কঠোর হওয়া দরকার। এছাড়াও মাননীয় খাদ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে মিলমালিক ও চালকলমালিক সিন্ডিকেটদের নিয়ন্ত্রন দূর করতে পারলে, কৃষক আর ক্ষতির মুখে পড়বে না।

লেখক:ডেপুটি রেজিস্ট্রার, সংস্থাপন শাখা, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort