প্রত্যেক সামর্থ্যবান নর-নারীর জন্য হজ ফরজ

ইসলামিক ডেস্ক:প্রত্যেক সামর্থ্যবান নর-নারীর জন্য হজ ফরজ। হজ সর্বসম্মতভাবে ইসলামের একটি রুকন এবং ইসলামের এক অতি গুরুত্বপূর্ণ ফরজ। কুরআনের বহু আয়াতে এবং অসংখ্য হাদিসে এর তাগিদ ও গুরুত্ব ব্যক্ত করা হয়েছে।

হজ ফরজ হওয়ার জন্য পাঁচটি শর্ত রয়েছে। এক. মুসলিম হওয়াদুই. আকল থাকা—অর্থাৎ বিবেকবান হওয়া, পাগল না হওয়া। তিন. বালেগ হওয়া, প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া। চার. আজাদ বা স্বাধীন হওয়া—অর্থাৎ কারো গোলাম বা দাস না হওয়া। পাঁচ. দৈহিক ও আর্থিকভাবে সামর্থ্যবান হওয়া

স্মরণ রাখতে হবে যে কারো ওপর জাকাত ফরজ না হয়েও তার ওপর হজ ফরজ হতে পারে। কেননা হজ ও জাকাতের মধ্যে বিশেষ পার্থক্য রয়েছে। হজ ও জাকাতের মধ্যে পার্থক্য হলো, জাকাতের সম্পর্ক নির্ধারিত নিসাবের সঙ্গে। হজের সম্পর্ক মক্কায় আসা-যাওয়ার খরচের সঙ্গে।

পবিত্র কুরআন মাজিদে আল্লাহ পাক বলেন, আল্লাহর উদ্দেশে আল্লাহর ঘর কাবা শরিফে হজব্রত পালন করা সে সব মানুষের ওপর ফরজ যাদের তথায় পৌঁছবার মতো সঙ্গতি আছে। মহিলাদের হজ ফরজ হতে তার মালিকানায় সম্পদ অথবা নগদ অর্থ থাকতে হবে; যা কর্মজীবী মহিলার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।

মুসলিম মহিলাদের হজে যেতে যেহেতু সাথে একজন পুরুষ মাহরাম অবশ্যই থাকতে হয়; ওই মাহরামের স্বেচ্ছায় খরচ বহনের সঙ্গতি বা ইচ্ছা না থাকলে মহিলা দু’জনের খরচ বহন করে হজ সম্পাদন করবেন। স্বামী বা ছেলে বা মাহরাম স্বেচ্ছায় খরচ বহন করলে সেটি তাঁর জন্যে সৌভাগ্যের।

এ বছর যারা হজে যাচ্ছেন এবং ইতিমধ্যে হজের নিয়তে সৌদীতে অবস্থান করছেন তাদের সকলকেই মহান রাব্বুল আলামিন নিরাপদে রাখুন এবং হজ কবুল করুন। আগামীতে সকল সামর্থ্যবান নর-নারীর হজে যাওয়ার তাওফিক দিন।-আমিন।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort