কোরবানীর চামড়ায় গরিব, ইয়াতিম, অসহায়দের অগ্রাধিকার

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:পবিত্র কোরবানি ঈদের মাহাত্ম ত্যাগে। এখানে যতো বেশী দান করা যায় ততো বেশী আনন্দ। কোরবানীর পশুর চামড়া একটি অর্থকরী সম্পদ যদিও এবার পানির দামে পশুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে। তারপরেও কুরবানির পশুর চামড়া ফেলে দেয়ার জিনিস নয়।

ইসলামি শরিয়তের দৃষ্টিতে কুরবানির চামড়া দান করা উত্তম। এক্ষেত্রে তা গরিব, ইয়াতিম, অসহায়দের অগ্রাধিকার প্রযোজ্য। যারা জাকাত, ফিতরা পাওয়ার উপযুক্ত তারাই কুরবানির চামড়ার অর্থ পাওয়ার হকদার। তবে এক্ষেত্রে ইয়াতিম, গরিব তালিবুল ইলম তথা ইলমে দ্বীনের গরিব শিক্ষার্থীকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেয়া যাবে। তালিবুল ইলম তথা ইলমে দ্বীনের শিক্ষার্থী যদি ইয়াতিম বা গরিব হয় তবে তাকে জাকাত, ফিতরা ও কুরবানির চামড়ার মূল্য প্রদানে বেশি ফজিলত রয়েছে।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort