দেশে প্রথমবারের মত খরগোশের মোলার দাঁতের সফল সার্জারি

রাজধানী প্রতিবেদক:এই প্রথম বাংলাদেশে পোষা প্রাণি খরগোশের মোলার দাঁতের সার্জারি বা দাঁত ছোট করার অপারেশন সম্পন্ন করলেন পোষাপ্রানি চিকিৎসক ডাঃ মোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী। লেপরড়ি পরিবারের সদস্য খরগোশ যাদের দাঁত ইঁদুরের ন্যায় বাড়তে থাকে। তাই তাদের প্রতিনিয়ত খড়, ঘাস বা অন্যান্য ফাইবার জাতীয় খাদ্য কেটে দাঁতের বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রন করতে হয়। কিন্তু নিয়ন্ত্রন করতে ব্যর্থ হলে দাঁত বৃদ্ধি পেয়ে তাদের মাড়ি পর্যন্ত পৌছালে খরগোশের খাবার গ্রহণ বাধাগ্রস্ত হয়। এতে করে তাদের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটে।

অন্যান্য পোষা প্রাণির সাথে সাথে খরগোশ পালন আমাদের দেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সেই সাথে দেখা দিচ্ছে খরগোশের দাঁতের নানা ধরণের সমস্যা। কিন্তু উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে এই ব্যয়বহুল অপারেশনের জন্য মালিক প্রস্তুত থাকলেও উপযুক্ত প্রযুক্তির অভাবে খরগোশের দাঁত বারিং বা দাঁত ছোট করার মত চিকিৎসা বাংলাদেশে করা হচ্ছিল না। তাছাড়া এই অপারেশনে ঝুঁকি থাকায় বিভিন্ন পোষা প্রাণির চিকিৎসকগনও এই অপারেশন করার জন্য আগ্রহ দেখান না।

সম্প্রতি খরগোশের দাঁতের সমস্যা নিয়ে বিভিন্ন ডাক্তারের দ্বারস্থ হয়েও ব্যর্থ হয়ে যখন পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে যাবার চিন্তা করছিলেন নাজ আফরিন খাঁন, তখন তিনি সর্বশেষ হিসেবে চেষ্টা হিসেবে ডাঃ মোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী কাছে আসেন। তরুণ এই ডাক্তার মালিকের এই অসহায় অবস্থা দেখে ভাবলেন অন্যান্য দেশে এই চিকিৎসা করা গেলে আমাদের দেশেও সম্ভব হবে। তাই তিনি খরগোশের মালিক নাজ আফরিন খাঁনকে আশ্বস্ত করে বলেন তিনি সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন। নাজ আফরিন খাঁন এবং বাংলাদেশ রেবিট গ্রুপ (বি আর জি) এর উদ্যোক্তা নাদিয়া বিনতে আলম এবং ডাঃমোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী মিলে বিদেশী বিভিন্ন ডাক্তারদের সাহায্য নিতে থাকেন। দীর্ঘ একমাসের প্রচেষ্টায় সফলতা পান তারা ।

আজ বৃহস্পতিবার লালমাটিয়াস্থ “প লাইফ কেয়ার” ক্লিনিকে এই অপারেশন সম্পন্ন করেন ডাঃ মোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী। এতে সহযোগিতা করেন এসিস্টেন্ট মিরাজুল ইসলাম এবং মালিক নাজ আফরিন খাঁন। অপারেশনের পর সঠিক সময়ে খরগোশটির অজ্ঞান অবস্থা থেকে জ্ঞান ফিরে আসে।

খরগোশের মালিক নাজ আফরিন খান বলেন, বাংলাদেশে এই প্রথম আমার স্টুয়ার্ড (খরগোশ) এর অপারেশন সম্পন্ন করলেন ডাঃ মোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী। আমি অত্যন্ত আনন্দিত এই জন্য যে বাংলাদেশে এই প্রথম আমার খরগোশের মাধ্যমে একটি ইতিহাস তৈরি হলো। এখন থেকে আমাদের আর মনে কষ্ট নিয়ে খরগোশের দাঁত ব্যথার আর্তনাদ সহ্য করতে হবে না। আমি নাদিয়া বিনতে আলম আপু সহ বিদেশী ডাক্তার এবং অন্যান্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এই সম্পর্কে ডাক্তার মোঃ সাদ্দাম পাটোয়ারী জানান, আমাদের প্রবল ইচ্ছাসত্ত্বেও প্রযুক্তির অভাবে আমরা অনেক কিছু করতে পারি না। তবুও চেষ্টা করে যাচ্ছি যাতে আমাদের দেশের পোষাপ্রাণি মালিকদের যাতে সার্বোচ্চ সহযোগিতা করতে পারি। আমি সকলের দোয়া চাই যাতে সব ধরনের চিকিৎসা আমি পোষাপ্রাণিদের করতে পারি। আজকের এই অপারেশন করার পর আমি নিজেও আত্মবিশ্বাসি। আমাকে সহযোগিতা করার জন্য বিভিন্ন দেশের ডাক্তারসহ এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

antalya bayan escort bursa bayan escort adana bayan escort mersin bayan escort mugla bayan escort samsun bayan escort konya bayan escort