জাতীয় ৪ নেতাকে হত্যার কুশীলবদের বিচার দাবি: নোবিপ্রবি উপাচার্য

জাতীয় ৪ নেতাকে হত্যার কুশীলবদের বিচার দাবি: নোবিপ্রবি উপাচার্য

কামরুল হাসান শাকিম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি:৩ নভেম্বর মধ্যরাতে জাতীয় চার নেতাকে যারা হত্যা করেছেন সেসব কুশীলব-ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের দাবি করেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) এর উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান। আজ শনিবার (০৩ নভেম্বর ২০১৮) নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) জেলহত্যা দিবস পালন অনুষ্ঠানে তিনি এ দাবি জানান।

এদিন যথাযোগ্য মর্যাদা, শ্রদ্ধা ও ভাবগাম্ভীর্যে নোবিপ্রবিতে জেলহত্যা দিবস পালিত হয়। দিবস উপলক্ষে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ কালো ব্যাজ ধারণ করে। নোবিপ্রবি পরিবারের পক্ষ থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান শহীদদের স্মৃতির প্রতি সম্মান জানিয়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর ম্যুরাল প্রাঙ্গনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান ও কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন।

উপাচার্য জেলহত্যা দিবস নিয়ে বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যার পর ৩ নভেম্বর মধ্যরাতে জাতীয় ৪ নেতা- সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমদ, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামরুজ্জামানকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। ইতিহাসের এই নিষ্ঠুর হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় স্তম্ভিত হয়েছিল সমগ্র বিশ্ব। কারাগারের বন্দি থাকা অবস্থায় বর্বরোচিত এ হত্যাকান্ড পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল ঘটনা। উপাচার্য  হত্যাকারীদেরকে মরণোত্তর বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন বলেন, ১৫ আগস্টে জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যা, ৩ নভেম্বর ৪ নেতা হত্যা এবং ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা সব একসূত্রে গাঁথা। আজকের এদিনে এসব হামলা ও হত্যার নেপথ্যের কুশীলবদের চিনে নিতে হবে। সেদিন ৩ নভেম্বর হত্যাকান্ডের আর্ট ওয়ার্ক যারা করেছে তাদেরকে মরণোত্তর বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে। যাতে করে ভবিষ্যতে এমন ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি আর একটিও না ঘটে। কিন্তু আজোও যারা জাতির পিতার সুযোগ্য তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তাদের প্রত্যেকের ব্যাপারে আমাদের সজাগ ও সর্তক থাকতে হবে।  

এৃসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হক, শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি ড. গাজী মো. মহসিন, অফিসার্স এসোসিয়েশন সাধারণ সম্পাদক মো. সাইদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, দপ্তর ও শাখাপ্রধান, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সবশেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি ও অফিসার্স এসোসিয়েশন এর  নেতৃবৃন্দ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

wso shell Indoxploit shell fopo decode hızlı seo googlede üst sıraya çıkmak seo analiz seo nasıl yapılır iç seo nasıl yapılır evden eve nakliyat halı yıkama bmw yedek parça hacklink panel bypass shell hacklink böcek ilaçlama paykasa fiyatları hacklink Google