Monday, 21 May 2018

 

বরকতময় রজনীতে মহান আল্লাহর কাছে গোনাহ মাফের সর্বোচ্চ সুযোগ কাজে লাগাই

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:আজ ২২মে রবিবার সূর্য অস্ত গেলেই এক অপার্থিব পবিত্রতায় আবৃত রজনীর আবির্ভাব ঘটবে এবং আগামীকাল সোমবার সূর্যোদয় পর্যন্ত এ রাতের মহিমাময় ফজিলত অব্যবহত থাকবে।মুমিন-মুসলমানদের জন্য মহিমান্বিত এই রাত ইবাদত-বন্দেগির। পাপ-পঙ্কিলতা থেকে নিষ্কৃতি লাভের। এ রাতে মহান আল্লাহতায়ালা তার বান্দাদের প্রতি বরকত ও রহমত নাজিল করেন। এ কারণেই এ রাতকে লাইলাতুল বরাত বা ভাগ্য রজনী বলা হয়।

পবিত্র শাবান মাসে গোনাহ থেকে বাঁচার দোয়াগুলি বেশি করে পড়ুন

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: জেনে না জেনে আমরা অনেক গোনাহ্ করি।পরম করুনাময় আমাদের গোনাহ্ মাফ করার জন্য সব সময়ই ব্যাকুল থাকেন কেবল আমাদের প্রয়োজন তাঁর নির্দেশ মতো জীবনযাপন করা এবং গোনাহ্ থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য তওবা করা এবং গোনাহ্ থেকে বেচেঁ থাকার জন্য দোয়া পড়া।

২২ মে দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: শনিবার সন্ধ্যায় দেশের আকাশে কোথাও পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এজন্য রোববার রজব মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হচ্ছে। আগামী সোমবার থেকে শাবান মাস গণনা শুরু হবে। সে হিসেবে আগামী ২২ মে দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে।

পবিত্র শাবান মাসে অধিকহারে ইবাদাত-বন্দেগী করুন

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: চলছে হিজরি সনের অষ্টম মাস শাবান। নানা কারণে মাসটি অত্যন্ত ফজিলত ও তাৎপর্যপূর্ণ। শাবান মাসের আগের মাস অর্থাৎ হিজরি বর্ষপরিক্রমায় সপ্তম মাস হচ্ছে পবিত্র রজব মাস। রাসুল (সা.) রজবের চাঁদ উঠলে দোয়া করতেন, ‘হে আল্লাহ আমাদের রজব ও শাবান মাসে বরকত দান করুন এবং আমাদের রমজান পর্যন্ত পৌঁছে দিন।’ অর্থাৎ রমজান পর্যন্ত হায়াত দীর্ঘ করে দেয়ার দোয়া রাসুল (সা.) করতেন। এর কারণ হলো যেন আমরা মহান পবিত্র রমজান মাসের ফজিলত লাভে ধন্য হই। এ জন্য পবিত্র রজব মাসের চাঁদ উদিত হওয়ার পর রমজানের চাঁদ দেখা পর্যন্ত ওই দোয়াটি পড়তে বলা হয়েছে। পবিত্র রমজান মাস যেহেতু বছরের সর্বশ্রেষ্ঠ মাস, এ জন্য আগে থেকেই এ মাসের ইবাদত-বন্দেগির জন্য প্রস্তুতি নেয়াটাই একজন মুমিনের কর্তব্য। রাসুল (সা.) রজব মাস থেকেই রমজানের প্রস্তুতি গ্রহণ করতেন। শাবান মাসে পুরোদমে রমজানকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুতি নিতেন।

উপার্জন হালাল হওয়ার প্রথম শর্ত হলো কাজ হালাল হওয়া

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম, ইসলামিক ডেস্ক: উপার্জন হালাল হওয়ার প্রথম শর্ত হলো কাজ হালাল হওয়া। হালাল উপার্জনের মাধ্যমে জীবনযাপন করা আল্লাহর নির্দেশ। পবিত্র কোরআনে মহান রাব্বুল আলামিন ইবাদত সমাপ্ত হওয়ার পর রিজিকের সন্ধানে জমিনে ছড়িয়ে পরার কথা বলেছেন।