Sunday, 19 November 2017

 

শেকৃবিতে জুনোটিক রোগ এবং পাঠ্যক্রম প্রণয়ন বিষয়ক সেমিনার ও পরামর্শ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে(শেকৃবি)স্নাতকোত্তর পর্যায়ে জুনোটিক রোগ সংক্রান্ত পাঠ্যক্রম প্রণয়নের লক্ষ্যে একটি সেমিনার ও পরামর্শ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (রবিবার) ২৫ ডিসেম্বর রোজ রবিবার দিনব্যাপী শেখ কামাল অনুষদ ভবনের সম্মেলন কক্ষে মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগ এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) এর অঙ্গসংগঠন রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল-ইউকে, বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে এ সেমিনার ও কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ও দেশের প্রথম জুনোটিক রোগ গবেষণা ও তথ্য কেন্দ্রের কেন্দ্র প্রধান ডঃ কে, বি, এম, সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন প্রফেসর ডঃ মোঃ মোফাজ্জল হোসাইনের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে সেমিনার শুরু হয়।
শুরুতেই রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল এর কার্যক্রম তুলে ধরেন রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল-ইউকে, বাংলাদেশ এর প্রোগাম ম্যানেজার জনাব রাজু আহমেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ কামাল উদ্দিন আহাম্মদ বলেন, জুনোটিক রোগ গবেষণা ও তথ্য কেন্দ্র এসব রোগের গবেষণার ক্ষেত্র উন্মোচন করেছে। বাংলাদেশে এ ধরণের গবেষণার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। তাই শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এইসব রোগবালাই এর উপর গবেষণা চলমান রাখতে আগ্রহী। তিনি ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) সহ বিভিন্ন দাতা সংস্থাকে বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশে এসকল গবেষণায় এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানান।
 রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর এম নজরুল ইসলাম জানান, তারা বাংলাদেশে জুনোটিক রোগ গবেষণায় আরো অর্থায়ন করতে আগ্রহী। তিনি এ সমস্ত গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়নে শেকৃবি সহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তা কামনা করেন।

বাংলাদেশে ওয়ান হেলথ এর পথিকৃৎ ফুড এন্ড এগ্রিকালচার অর্গনাইজেশন (এফএও) এর ওয়ান হেলথ সমন্বয়কারী প্রফেসর নীতিশ দেবনাথ বলেন, সারা বিশ্বে ওয়ান হেলথ এখন একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। এই কর্মশালার মাধ্যমে যে পাঠ্যক্রম তৈরি করা হবে তা আমাদের শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষায় শিক্ষিত করবে। মানুষ ও প্রাণীর চিকিৎসা শিক্ষা প্রদানকারী সকল প্রতিষ্ঠানগুলো অদূর ভবিষ্যতে এ ধরণের পাঠ্যক্রম চালু করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

জানা যায়, এই কর্মশালার মাধ্যমে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে একটি আধুনিক ও যুগোপযোগী জুনোটিক রোগ সংক্রান্ত পাঠ্যক্রম প্রণয়ন করা হবে এবং শেকৃবির মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে তা বাস্তবায়ন করা হবে। এ প্রসঙ্গে উক্ত বিভাগের চেয়ারম্যান ও জুনোটিক রোগ গবেষণা ও তথ্য কেন্দ্রের কেন্দ্র প্রধান ডঃ কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম জানান, ভেটেরিনারি শিক্ষা ও গবেষণায় জুনোটিক রোগের গুরুত্ব অনুধাবন করে স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের আধুনিক ও যুগোপযোগী আন্তর্জাতিক মানের একটি পাঠ্যক্রম প্রণয়নই এই কর্মশালার মূল লক্ষ্য। তিনি আশা করেন, এই কর্মশালার মাধ্যমে বাংলাদেশে জুনোটিক রোগের শিক্ষা ও গবেষণায় নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।  

বিশ্ববিদ্যালয়ের পোস্ট গ্রাজুয়েট স্টাডিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ডঃ পরিমল কান্তি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন শেকৃবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ডঃ মোঃ সেকেন্দার আলী ও কোষাধক্ষ্য প্রফেসর ডঃ মোঃ আনোয়ারুল হক বেগ। সেমিনারে বিভিন্ন শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের ৮০ জন বিশেষজ্ঞ  উপস্থিত ছিলেন।-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি