Tuesday, 12 December 2017

 

কৃষির বিকাশে চাকরীর ক্ষেত্র তৈরী হয়েছে-অর্থমন্ত্রী

ডা: মো: মোস্তাফিজুর রহমান: ৪৫ বছরে দেশ কৃষিতে অনেক দূর এগিয়েছে, কৃষিতে বিকাশ সাধিত হয়ে চাকরীর ক্ষেত্র তৈরী হয়েছে। নতুন নতুন উদ্যোক্তা সফলভাবে কোম্পানী প্রতিষ্ঠিত করেছেন কৃষি ক্ষেত্রে। আর এসব কোম্পানীতে কৃষিবিদদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে যা নি:সন্দেহে আনন্দের। ৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১১:০০ টায় কৃষিবিদ ইন্সিটিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি)-অডিটরিয়ামে এগ্রো ক্যারিয়ার এক্সপো' ২০১৭ এর রিফ্লেকশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি এসব কথা বলেন।

দেশের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে কৃষিবিদদের অবদান অনেক জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, একটা সময় বাংলাদেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল কিন্তু বর্তমানে চাহিদা পুরণ হয়েও বেশি হচ্ছে। দিনে দিনে জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। এজন্য কৃষিবিদদের কৃতিত্বের কথা কৃতজ্ঞের সাথে স্মরণ করেন তিনি। বর্তমানে উতপাদন বেড়েছে ৪ গুন। কৃষিবিদদের দক্ষতা ও প্রযুক্তির ব্যবহারের সমন্বয়ে একই জমিতে আগের চেয়ে বেশি এবং ভাল ফসল হচ্ছে। সরকারী চাকুরীর পাশাপাশি বেসরকারি  চাকুরীতে কৃষিবিদরা ভাল করছে।

কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ-এর সভাপতি কৃষিবিদ জনাব এ এম এম সালেহ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে কৃষিবিদ জনাব আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এমপি, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস-চ্যান্সেল প্রফেসর ড. জসিমউদ্দিন খান বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া বক্তব্য দেন কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ-এর মহাসচিব কৃষিবিদ জনাব খায়রুল আলম প্রিন্স, মেলার আহ্বায়ক মি:সমীর চন্দ, সদস্য সচিব এম এম মিজানুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন কৃষিবিদ ড. মো. আবদুল বারী ও কৃষিবিদ ড. সুস্মিতা দাস।

সমাপনী দিনে বিকেলে দুইটা ট্রেনিং সেশন অনুষ্ঠি হয় যেখানে কৃষি সাংবাদিকতার উপর আলোচনা করেন চ্যানেল আই এর পরিচালক শাইখ সিরাজ ও যোগাযোগ দক্ষতার উপর আলোচনা করেন নাভীদ মাহবুব। সেশন শেষে সনদপত্র প্রদান করা হয়।