Saturday, 23 September 2017

 

কলাগাছের সিগাটোকা রোগের বিস্তারিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কলা একটি অর্থকরী ফসল যা কৃষকরা নগদমূল্যে বিক্রয় করে থাকেন। তবে যে সব রোগের কারণে কলা চাষীরা অর্থনৈতিক ক্ষতির মুখে পড়েন তাঁর মধ্যে অন্যতম একটি রোগ হলো কলা গাছের সিগাটোকা রোগ। কলা গাছের পাতায় হলুদ রংয়ের গোলাকার বা ডিম্বাকৃতি দাগ পড়ে ধীরে ধীরে পাতা শুকিয়ে মারা যাচ্ছে কি? যদি এমন হয় তাহলে বুঝবেন কলাগাছে সিগাটোকা রোগ হয়েছে। এ রোগ গাছের পরিত্যক্ত পাতায় বেঁচে থাকে এবং বাতাসের মাধ্যমে সুস্থ গাছে ছড়ায় তাই এ রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত জানার প্রয়োজন রয়েছে কলা চাষীদের।।

এ রোগ চিনবেন কিভাবে?

  • পাতার শিরা বরাবর হালকা হলুদ বা সবুজাভ হলুদ লম্বাটে দাগ পড়ে।
  • দাগগুলো বড় হলে চোখের আকৃতি ধারণ করে।
  • দাগগুলো আস্তে আস্তে কালো হয়ে যায়।
  • দাগগুলো আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে এবং কালো হয়ে পাতা আগুনে পুড়ে যাওয়ার মত মনে হয়।
  • ধীরে ধীরে পাতার বোটা আক্রান্ত হয় এবং পরে বোটা শুকিয়ে ভেঙে পড়ে গাছ বরাবর ঝুলে থাকে
  • আক্রমন বেশি হলে গাছের সমস্ত পাতাই শুকিয়ে যায় এবং গাছ মারা যায়।
  • ব্যাপকভাবে আক্রান্ত বাগান দূর থেকে দেখলে আগুনে ঝলসে যাওয়ার মত মনে হয়।

এ রোগ কি ক্ষতি করে?

  • কলার ফলন কমে যায়
  • কলার আকৃতি ছোট হয়
  • কলার গুনাগুন ও মিষ্টতা কমে যায়। ফলে বাজারমূল্য কমে যায়।
  • অধিক আক্রমনে বাগান ধ্বংস হয়ে যায়।

রোগ দমন বা ব্যবস্থাপনা:

  • জমি পরিষ্কার পরিছন্ন রাখুন
  • জমিতে পরপর ২-৩ বছরের বেশি কলার চাষ করবেন না
  • যথাযথভাবে সেচ ও পানি নিষ্কাশণ করুন
  • অতিরিক্ত ইউরিয়া সার ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন
  • মরা/পচা পাতা কেটে বাগানে রোদ ও আলো বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা করুন
  • আক্রান্ত পাতা সংগ্রহ করে মাটিতে পুঁতে ফেলুন অথবা পুড়িয়ে ফেলুন।
  • আক্রমণের প্রাথমিক অবস্থায় বর্দোমিক্সারের (১০০ গ্রাম তুঁতের সাথে ৫ লিটার পানি এবং ১০০ গ্রাম কলিচুনের সাথে ৫ লিটার পানি মিশিয়ে মিশ্রণগুলোকে পরে একত্রে করতে হবে) সাথে তিসির তেল (১০ লিটারে ২০০ মিলিলিটার) মিশিয়ে ১ম বার স্প্রে করার ৭ দিন পর ২ বার স্প্রে করে এ রোগ দমন করা যায়।
    তবে রোগের মাত্রা বেশি হলে ১ম বার স্প্রে করার ৩ দিন পর ২ বার, তার পর ৩য় বার এবং ২১ দিন পর ৪র্থ বার স্প্রে করতে হবে।

সতর্কতা: যে কোন বালাইনাশক ব্যবহার করার সময় প্রয়োজনীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিন। প্যাকেট বা বোতলের গায়ে লেখা পরামর্শ অবশ্যই মেনে চলতে হবে। প্রয়োজনে আপনার নিকটস্থ কৃষি অফিসে কৃষি কর্মকর্তার সহায়তা নিন।

কোরবানির পশুর জন্য নিরাপদ আশ্রয় ও কোরবানির প্রস্তুতি

কৃষিবিদ মোহাইমিনুর রশিদ:রাত পোহালেই দেশে পালিত হবে পবিত্র ঈদুল আযহা। আমাদের দেশে একদিনে অর্থাৎ পবিত্র ঈদুল আযহার দিনে প্রায় তিন মিলিয়ন (৩০ লাখ) পশু জবাই হয়ে থাকে। এতো কম সময়ের ব্যবধানে এ বিশাল পরিমাণ পশু জবাই করার রেকর্ড সম্ভবত: পৃথিবীতে দ্বিতীয় কোন দেশে নেই। আমাদের দেশে মূলত গরু, ছাগল, ভেড়া এসব পশুই কোরবানি দেওয়া হয়ে থাকে। কোরবানি মানে ত্যাগ বা উৎসর্গ। যা শুদ্ধতা ও পবিত্রতার প্রতীক।

"বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে সরকার ছিল-আছে-থাকবে"-ছানোয়ার হোসেন এমপি

কে এস রহমান শফি, টাঙ্গাইল ঃ টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ ছানোয়ার হোসেন বলেছেন, এবারের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে "সরকার ছিল, আছে এবং থাকবে"। বন্যা শুরুর পরই সরকারের পক্ষ থেকে বন্যাকবলিতদের শুকনা খাবার, চালসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হয়েছে এবং এখনো হচ্ছে। খুব শীঘ্রই হতদরিদ্রদের ১০টাকা কেজি করে চাল দেয়া শুরু হবে। এখন কৃষকদের ধানের চারা দেয়া হচ্ছে। আগামীতে ফসল আবাদের জন্য প্রণোদনা হিসেবে বীজ, সারও দেয়া হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কৃষক বান্ধব সরকার। কৃষির ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে।

কোরবানির জন্য সুস্থ পশুর কিছু বৈশিষ্ট্য

কৃষিবিদ মোহাইমিনুর রশিদ:আর এক দিন বাদেই ঈদ-উল-আযহা। ব্যস্ত জীবনে কোরবানির পশু ঈদের ২/১ দিন আগেই কিনতে হয়। তবে সুস্থ পশু চেনার জন্য আপনাকে কয়েকটি বিষয়ের দিকে অবশ্যই লক্ষ রাখা প্রয়োজন। কোরবানির জন্য বয়সের ব্যাপারটি অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে।

BARC NATP Phase-2 প্রকল্পের আর্থিক সহযোগীতায় বিনামূল্যে তিতির পাখি বিতরণ

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় পোল্ট্রি সায়েন্স বিভাগের আয়োজনে BARC NATP Phase-2 প্রকল্পের আর্থিক সহযোগীতায় এবং বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির সার্বিক সহযোগিতায় ৫ই সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অদূরে মেহেরচন্ডি প্রাণিসম্পদ সমৃদ্ধ গ্রামে মোট ১৫ জন খামারীার প্রতি জনকে ২০টি করে এক মাস বয়সী তিতির পাখি বিতরণ করা হয়।

“শ্রেষ্ঠ ফিড লিমিটেডকে” প্রথম সারির কোম্পানি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চান-সাব্বির মাহমুদ

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু করার স্বপ্ন অনেকেরই থাকে। কিন্তু অক্লান্ত পরিশ্রম, চরম আত্মত্যাগ আর নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে সেই স্বপ্ন সাফল্যের মঞ্জিলে নিয়ে যাওয়া কস্টসাধ্য হলেও অসম্ভব কিছু নয়। আর সেক্টরে নতুন হলেও নানা ব্যবসায়িক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে “শ্রেষ্ঠ ফিড লিমিটেডকে” দেশের পোলট্রি শিল্পে প্রথম সারির কোম্পানি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চান “শ্রেষ্ঠ ফিড লিমিটেড” এর নতুন চেয়ারম্যান জনাব সাব্বির মাহমুদ

নওগাঁয় বন্যা পরবর্তী কৃষি পূর্ণবাসন শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

কৃষি ফোকাস ডেস্ক:সম্প্রতি নওগাঁ জেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে নওগাঁ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে নওগাঁ জেলায় সাম্প্রতিক বন্যা পরবর্তী কৃষি পুর্ণবাসন সম্পর্কে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।নওগাঁর জেলা প্রশাসক ড. মো: আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ৫০ নওগাঁ-০৫ (সদর) আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মো: আব্দুল মালেক এমপি। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সম্প্রসারণ অনু বিভাগ, ঢাকার অতিরিক্ত সচিব জনাব মো: মোশারফ হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, ঢাকার মহাপরিচালক কৃষিবিদ জনাব মো: গোলাম মারুফ ও নওগাঁ জেলার পুলিশ সুপার জনাব মো: ইকবাল হোসেন।

পীরগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে আমনের চারা বিতরণ

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে সোমবার রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার লালদিঘী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গন হতে সাম্প্রতিক ভারী বর্ষণ ও উজানের ঢলে ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে নাবী রোপা আমন ধানের চারা বিতরণ করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ত্রাণ ও চারা বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী, এমপি।

কলা গাছের পানামা রোগ দমনের বিস্তারিত টিপস্

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কলা গাছের পাতা শুকিয়ে মরতে দেখে চিন্তিত হয়ে পড়েন কলা চাষীরা।না জেনে অনেক সময় তারা দিশেহারা হয়ে পড়েন। তবে কলা চাষে আর্থিকভাবে লাবান হতে চাইলে কলা গাছের নানা রোগ সম্পর্কে চাষীদের সম্যক ধারনা থাকা প্রয়োজন। তেমনি একটি রোগ হলো কলার পানামা রোগ।এগ্রিলাইফ২৪ ডটকমের সম্মানিত পাঠকদের জন্য পানামা রোগের বিস্তারিত টিপস্ রয়েছে এ লেখাটিতে---

কমিউনিটি লিড পানি ব্যবস্থাপনা কৃষক মাঠ স্কুল এর দায়িত্ব প্রাপ্ত সহায়তাকারীদের প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ অুনষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: সম্প্রতি পটুয়াখালীর একটি বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রশিক্ষণ কক্ষে বছরব্যাপি কমিউনিটি লিড পানি ব্যবস্থাপনা কৃষক মাঠ স্কুল এর দায়িত্ব প্রাপ্ত সহায়তাকারীদের অংশগ্রহণে ৬দিন ব্যাপি ব্লু গোল্ড প্রোগ্রামের উদ্যোগে প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ আয়োজন করা হয়। ট্রান্সফার অফ টেকনোলজি ফর এগ্রিকালচারাল প্রোডাকশন আন্ডার ব্লু গোল্ড প্রোগ্রাম (ডিএই অঙ্গ) এর প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ তাহমিনা বেগম প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন।