Saturday, 22 July 2017

 

ডিএই-ব্লু গোল্ড প্রোগ্রামের উদ্যোগে মৌসুমব্যাপি প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণের মাঠ দিবস উদযাপন

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: ট্রান্সফার অফ টেকনোলজি ফর এগ্রিকালচারাল প্রোডাকশন আন্ডার ব্লু গোল্ড প্রোগ্রামের আওতায় চলমান মৌসুমব্যাপি প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে প্রশিক্ষণার্থী সহায়তাকারী উপ-সহকারী কৃষি অফিসারবৃন্দের পরিচালিত কৃষক মাঠ স্কুলের অংশগ্রহণকারী কৃষকদের অংশগ্রহণে দৌলতপুর হর্টিকালচার সেন্টারে টিওটি মাঠ দিবসের আয়োজন করা হয়।

প্রশিক্ষণরত উপ-সহকারী কৃষি অফিসারবৃন্দ সহায়তাকারীদের তত্ত্বাবধানে ফসল উৎপাদনে টেকসই উৎপাদন প্রযুক্তি বুথ, কৃষি পরিবেশ বিশ্লেষণ বুথ, মানসম্মত উন্নত বীজ উৎপাদন ও সংরক্ষণ বুথ, বসতবাড়িতে সবজি চাষ বুথ এবং বালাইনাশকের কুফল বুথ স্থাপন করেন। আমন্ত্রিত কৃষক-কৃষাণীবৃন্দ ৫টি দলে ভাগ হয়ে বুথসমুহ পরিদর্শন করে ফসল উৎপাদনের টেকসই প্রযুক্তিসমুহ অবহিত হন।

বুথ পরিদর্শন শেষে কোর্স কো-অর্ডিনেটর কৃষিবিদ এস. এম. ফেরদৌসের সভাপতিত্বে ও স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে দৌলতপুরস্থ মেট্রোপলিটন কৃষি দপ্তর সংলগ্ন ডিএই অডিটোরিয়ামে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অবসর প্রাপ্ত উপ পরিচালক কৃষিবিদ মাখন লাল দাস মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ।

কৃষিবিদ মাখন লাল নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে কৃষক মাঠ স্কুলের গুরুত্ব উল্লেখ করে বলেন, মাঠ দিবসে পরিদর্শিত প্রযুক্তিসমুহ নিজের জমিতে প্রয়োগ করে কৃষি কাজ করতে পারলে মাঠ দিবস আয়োজনের উদ্দেশ্য সফল হবে। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন খুলনার উপ পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল লতিফ।  

অন্যান্যের মধ্যে মেট্রোপলিটন কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জাকিয়া সুলতানা, উপ সহকারী কৃষি অফিসারদের প্রতিনিধি ডি. কৃষিবিদ মোঃ রফিকুল ইসলাম, কৃষক মাঠ স্কুলের প্রতিনিধি হিসেবে কৃষক প্রশিক্ষক প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস, সুইটি বিশ্বাস, মঞ্জুর হোসেন প্রমুখ মত বিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন। সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপস্থাপন করেন সহায়তাকারী কৃষিবিদ সৈয়দ রেজা-ই-মাহমুদ ও কৃষিবিদ আতিকুন্নাহার। মতবিনিময় সভায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সহায়তাকারী কৃষিবিদ মোঃ নাসরুল মিল্লাত। মাঠ দিবসে ডুমুরিয়া উপজেলার লতা উত্তরপাড়া ও মোড়লবাড়ি, মিকশিমিল ও বরুণা পশ্চিমপাড়া কৃষক মাঠ স্কুলের ২৫০ জন কৃষক-কৃষাণী ও ৬০ জন কৃষি বিভাগীয় জেলা, উপজেলা ও ব্লক পর্যায়ের অফিসারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।