Monday, 20 November 2017

 

কোরবানীর প্রাণির রক্ত থেকে জৈব সার তৈরি করুন

সমকালীন কৃষি ডেস্ক:প্রতিবছর ঈদুল আজহায় বিপুল পরিমাণ প্রাণী কোরবানি দেয়া হয়। কোরবানীর প্রাণির রক্ত বা নাড়িভূড়ি থেকে অতি সহজেই জৈব সার তৈরী করে জমির উর্বরতা বাড়ানো সম্ভব। এজন্য প্রয়োজন সচেতনতা এবং সময়মতো ও ধারাবাহিকভাবে পদক্ষেপ নেয়া। পশুর রক্ত থেকে উৎকৃষ্ট জৈব সারে শতকরা প্রায় ১০ ভাগ নাইট্রোজেন থাকে, যা ইউরিয়া সারের মত কাজ করে। এ ছাড়া এতে রয়েছে ফসফরাস ও পটাসিয়াম।

প্রিয় কৃষিজীবী ভাই ও বোনেরা, মনে রাখবেন পশুর রক্ত থেকে প্রাপ্ত জৈব সার আপনার শস্যের ফলন বাড়িয়ে দিতে অত্যন্ত কার্যকর। এজন্য আপনি যা যা করবেন

  • জমির উর্বরতা বাড়ানোর জন্য এ সার খুবই উপযোগি। তাই প্রাণির রক্তকে ফেলনা মনে করে অপচয় করা মোটেই উচিত নয়।
  • যেখানে সেখানে গরু জবাই না করে সম্ভব হলে সামনে যে জমিতে ফসল উৎপাদন করবেন, সে জমিতে প্রাণি জবাই করুন।
  • প্রাণি জবাইয়ের পর কেবল রক্তের উপররে কিছু মাটি চাপা দিন। কিছু দিনের মধ্যেই তা পঁচে সারে পরিণত হবে।
  • প্রাণির নাড়িভূড়ি ও মল ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকলে নোংরা ও অস্ব্যাস্থ্যকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। অথচ এগুলোকে এক জায়গায় গর্ত করে পঁচালে তা থেকে মূল্যবান সার পাওয়া যায় ।

তাই রক্ত বা নাড়িভূড়ি থেকে প্রাপ্ত এ মূল্যবান জৈব সার ব্যবহারে সবাইকে সচেতন হতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তর, ঢাকা। প্রচারেঃ কৃষি তথ্য সার্ভিস, রংপুর অঞ্চল, রংপুর।