Friday, 27 April 2018

 

ডালিয়ার Powdery mildew রোগের বিস্তারিত

ড. কে, এম, খালেকুজ্জামান: ফুলপ্রেমীদের জন্য শীতের এ সময়টিতে ডালিয়া একটি স্থান দখল করে আছে। ফুলগাছটি টবে কিংবা অফিস আদালত চত্বরের লনে বেশ আকর্ষনীয় করে লরাগানো যায়। ফুলগুলি ফুটলে এর সৌর্ন্য সত্যিই সকলকে মুগ্ধ করে। ডালিয়া গাছ লাগানোর সময় এর অন্যসব পরিচর্যার পাশাপাশি বিভিন্ন রোগবালাই সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকা জরুরি বলে মনে করেন বিশিষ্ট এ উদ্ভিদ বিজ্ঞানী। এগ্রিলাইফ২৪ ডটকমের সম্মানিত পাঠকদের জন্য আজ থাকছে ডালিয়ার সাদা গুড়া (Powdery mildew)  রোগের বিস্তারিত।

ডালিয়ার সাদা গুড়া রোগটি এরিসাইফি পলিগনি (Eryshphe polygoni) নামক ছত্রা কের আক্রমনে ঘটে থাকে। আর্দ্র ও ছায়াচ্ছন্ন স্থানে রোগটি বেশী হয়। এছাড়া অল্প জায়গাতে বেশী গাছ থাকলেও রোগ বাড়ে। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি ও রাতে ঠান্ডা আবহাওয়া বিরাজ করলে এ রোগের প্রকোপ বেশী হয়।

রোগের লক্ষণ:

  • প্রথমে নীচের পাতাগুলোর উপর পিঠে সাদা পাউডারের মত অসংখ্য গুড়া দেখা যায় যা ছত্রাক স্পোর।
  • পরে সমস্ত পাতায় এই সাদা আস্তরণ ছড়িয়ে পড়ে
  • আক্রান্ত পাতা ফ্যাকাশে হয়ে শুকাতে থাকে
  • নীচের পাতা থেকে রোগ উপরের পাতাতে ছড়ায়
  • ডাঁটা ও বোটাতেও আক্রমন দেখা যায়
  • আক্রান্ত পাতার বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে যায়
  • ফলে ফুলের ফলন অত্যধিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

রোগের প্রতিকার:

  • গাছের পরিত্যক্ত অংশ পুড়ে ফেলতে হবে।
  • রোগের প্রকোপ কম হলে দ্রুত বেগে পানি স্প্রে করেও দমন করা যায়।
  • সোডিয়াম বাইকার্বোনেট (যেমন-বেকিং সোডা) ১ লিটার পানিতে ৫ গ্রাম হারে  মিশিয়ে ৭-১০ দিন পর পর ৩-৫ বার স্প্রে করতে হবে।
  • রোগ দেখা মাত্রই সালফার জাতীয় ছত্রাকনাশক (যেমন-থিয়োভিট ৮০ ডব্লিউজি বা কুমুলাস ডিএফ) ১ লিটার পানিতে ২ গ্রাম হারে অথবা প্রোপিকোনাজোল (যেমন-টিল্ট ২৫০ ইসি) ১ লিটার পানিতে ০.৫ মিলি হারে  মিশিয়ে ৭-১০ দিন পর পর ২-৩ বার স্প্রে করতে হবে।

========================
লেখক:-উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব)
মসলা গবেষণা কেন্দ্র, বিএআরআই
শিবগঞ্জ, বগুড়া।
Mobile No. 01911-762978; 01558-313632; 01673-632486.
E-mail: ;