Saturday, 18 August 2018

 

‘কেআইবি কৃষি সেবা কেন্দ্র’-একটি মহতী উদ্যোগে

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: কৃষকদের বিভিন্ন প্রকার কৃষি বিষয়ক সমস্যার সমাধান দিতে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশে (কেআইবি) চালু হচ্ছে ‘কেআইবি কৃষি সেবা কেন্দ্র’। এ সেবা কেন্দ্র থেকে সরাসরি এবং টেলিফোনের মাধ্যমে বিনামূল্যে কৃষক ও শহুরে ছাদ বাগানী ছাড়াও  কৃষি, উদ্যান বিষয়ক, মৎস্য এবং প্রাণি পালন বিষয়ক পরামর্শ মিলবে। প্রতি শনিবার সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত কেআইবি কৃষি সেবা কেন্দ্র থেকে এ সেবা দিবেন সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ৩০ জন বিশেষজ্ঞ।

১ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর কেআইবি কমপ্লেক্সে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কেআইবি’র সভাপতি কৃষিবিদ এ এম এম সালেহ আগত সাংবাদিকদের নিকট এসব তথ্য তুলে ধরলেন। তিনি বলেন ঢাকা শহরের বাসিন্দারা বাড়ীর ছাদ বাগানে বিভিন্ন ধরণের শাক-সবজি, ফুল-ফলের বাগান করছেন। চাষাবাদ করতে গিয়ে তাঁরা নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। গাছের রোগ বালাই ও ব্যবস্থাপনা নিয়ে সঠিক পরামর্শের অভাবে অনেক সময় তাঁরা বাগান বা সবজি চাষ করার উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন। এছাড়াও যাঁরা মৎস্য ও পশুপালন করছেন তাঁরাও বিভিন্ন সমস্যার সম্মুথীন হচ্ছেন। তাঁদের সমস্যার কথা বিবেচনা করেই "কেআইবি কৃষি সেবা কেন্দ্র" চালূ হতে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন এ মহতী উদ্যোগে কেআইবি’র মহাসচিব কৃষিবিদ মোঃ খায়রুল আলম প্রিন্স এর প্রত্যক্ষ তত্বাবধায়নে এবং কেআইবি’র দপ্তর সম্পাদক কৃষিবিদ এম এম মিজানুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ আরিফুর রহমান তরফদার, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মোফা্জ্জল হোসেন, প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ ড. মোঃ বেলাল হোসেন, কেআইবি’র মেট্রোপলিটন শাখার সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ ড. মোঃ তাসদিকুর রহমান সনেট এর সহযোগিতায় এই উদ্যোগ সফল হতে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয় কেআইবি’র এই কৃষি সেবা কেন্দ্রের সার্বিক সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন কেআইবি’র সমাজ কল্যাণ সম্পাদক কৃষিবিদ মোঃ মোফাজ্জল হোসেন (মোবাইলঃ ০১৭১২-১১১২৩৬)। কেআইবি কৃষি সেবা কেন্দ্র থেকে প্রতি শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিনামূল্যে সেবা প্রদান করা হবে। কৃষি সংশ্লিষ্ট যে কোন ব্যক্তি ০২-৯১২২৮০১ নম্বরে ফোন করে সমস্যার সমাধান নিতে পারবেন।

সংবাদ সম্মেলনে সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিশেষজ্ঞ প্যানেলের কৃষিবিদ এম. এনামুল হক, কৃষিবিদ ড. বেলাল সিদ্দিকী, কৃষিবিদ আব্দুর রশীদ, কৃষিবিদ সালেহ আহমেদ, কৃষিবিদ মাহফুজ হোসেন মিরদাহ ও কেআইবি’র অনন্যা নেতৃবৃন্দ এবং প্রিন্ট ,ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

এদিকে কেআইবি’র এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন রাজধানী ঢাকা শহর ছাড়াও প্রান্তিক পর্যায়ের কৃষক ও খামারীরা। তারা বলেছেন এধরনের উদ্যোগ নি:সন্দেহে প্রশংসনীয়। তবে এটির ধারাবাহিতকতা বজায় থাকলে কৃষক থেকে শুরু করে সকলেই এর সুফল ভোগ করতে পারবেন।