Wednesday, 15 August 2018

 

আম গাছে Die back রোগ

ড. কে, এম, খালেকুজ্জামান: আম গাছে আগা মরা (Die back) রোগটি কলিটোট্রিকাম গ্লোওস্পোরোয়ডিস (Colletotrichum gloeosporioides), ডিপ্লোডিয়া ন্যাটালেনসিস (Diplodia natalensis) এবং পেস্টালোসিওপসিস ম্যাঙ্গিফেরী (Pestalotiopsis mangiferae) নামক ছত্রাকের আক্রমণে হয়ে থাকে।

রোগের বিস্তার:রোগের জীবানু মরা ডাল বা পুরাতন পাতায় অবস্থান করে। রোগের বীজকণা বাতাসের মাধ্যমে বিস্তার লাভ করে নতুন পাতা ও ডগায় আক্রমণ করে। উচ্চ তাপমাত্রা, শতকরা ৮০ ভাগের উর্ধ্বে বাতাসের আর্দ্রতা এবং বৃষ্টিপাত এ রোগের আক্রমণ ও বিস্তারে অনুকুল অবস্থার সৃষ্টি করে।

রোগের লক্ষন:

  • মার্চ-এপ্রিল মাসে এ রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটে।
  • রোগের জীবানু প্রথমে কচি পাতায় আক্রমন করে
  • আক্রান্ত পাতা বাদামী বা কালো বর্ণের হয় এবং পাতার কিনারা মুড়িয়ে যায়
  • পাতা দ্রুত মারা যায় ও শুকিয়ে যায়
  • আক্রান্ত পাতা থেকে এ রোগ কান্ডে ছড়িয়ে পড়ে এবং ডগার অগ্রভাগ মেরে ফেলে
  • ডগার মরা অংশ নীচের দিকে অগ্রসর হতে থাকে
  • দূর হতে আগা মরা রোগের লক্ষন বোঝা যায়
  • আক্রান্ত কচি ডালের অভ্যন্তর ভাগ বিবর্ণ দেখায়
  • ডাল লম্বালম্বিভাবে চিরলে কালো রেখা পরিলক্ষিত হয়
  • আক্রমণ বেশী হলে গাছ মারা যেতে পারে।

রোগের প্রতিকার:

  • গাছে ইউরিয়া সারসহ প্রয়োজনীয় সার প্রয়োগ করে পানি সরবরাহ করলে রোগের আক্রমন কমে যাবে।
  • আক্রান্ত ডগা কিছু সুস্থ অংশসহ কেটে পুড়ে ফেলতে হবে এবং কাটা অংশে বর্দোপেষ্ট (প্রতি লিটার পানিতে ১০০ গ্রাম তুঁতে ও ১০০ গ্রাম চুন) লাগাতে হবে।
  • কপার অক্সিক্লোরাইড গ্রুপের ছত্রাকনাশক (যেমন-কুপ্রাভিট ৫০ ডব্লিউপি) প্রতি লিটার পানিতে ৫ গ্রাম অথবা প্রোপিকোনাজোল গ্রুপের ছত্রাকনাশক (যেমন-টিল্ট ২৫০ ইসি) প্রতি লিটার পানিতে ০.৫ মিলিলিটার হারে মিশিয়ে ১০ দিন পর পর ৩-৪ বার গাছে স্প্রে করতে  হবে।

====================================
লেখক:-উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব)
মসলা গবেষণা কেন্দ্র, বিএআরআই
শিবগঞ্জ, বগুড়া।
Mobile No. 01911-762978; 01558-313632; 01673-632486.
E-mail: ;