Friday, 22 June 2018

 

পুষ্টিমান সম্পন্ন নিরাপদ খাবার পরবর্তী প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে যাবে-ড. শামীমা

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: "আমরা সবাই সবুজ আবহে বড় হবো। পুষ্টিমান সম্পন্ন নিরাপদ খাবার খেয়ে পরবর্তী প্রজন্ম বড় হবে। সুস্থ্য সবল মেধাবী জাতি হিসেবে বেড়ে উঠে আমরা বাংলাদেশকে বিশ্বের প্রথম কাতারে নিয়ে যাবো"। ৯ এপ্রিল সোমবার বেলা ১২ টায় রাজধানীর আসাদগেটস্থ The People’s University of Bangladesh-এর সেমিনার হলে "Safe Food: Green Chicken for Next Generation”-শীর্ষক সেমিনারে এমন অনুভূতি ব্যক্ত করলেন সেমিনারের প্রধান অতিথি PUB-এর বোর্ড অব ট্রাস্টির সদস্য সচিব এবং এডভাইজার প্রফেসর ড. শামীমা নাসরিন শাহেদ।

ভারসাম্যপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস ভালো স্বাস্থ্যের জন্য জরুরি। আর ভারসাম্যপূর্ণ খাবার খেতে হলে পুষ্টির বিষয়টি মাথায় রাখতেই হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিষ্ট্রি ও মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের অভিজ্ঞ এ প্রফেসর বলেন নিরাপদ খাদ্য গ্রহণে ভোক্তারা এখন বেশ সচেতন। কাজেই দেশের খাবার উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলিকে উৎপাদনের প্রতিটি পর্যায়ে খাবারের মান নিয়ন্ত্রণে কঠোর ও আন্তরিক হতে হবে। তিনি এ ধরনের খাবার বিশেষ করে "Green Chicken"-উৎপাদন ও ভোক্তাদের মাঝে সরবরাহ করায় এজি এগ্রো ফুডস্ কতৃপক্ষের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

জনাব জসিম উদ্দিন সরকার Head, SAC, Tourism & HM, IQAC, PUB-এর সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন The People’s University of Bangladesh-এর উপাচার্য প্রফেসর ড. এ কে এম সালাহউদ্দিন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার জনাব মোহাম্মদ মোফাক্কের, IQAC, PUB-এর ডিরেক্টর জনাব মোঃ মাসুদ রেজা এবং অতিরিক্ত পরিচালক জনাব মোঃ হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এজি এগ্রো ফুডস লিমিটেডের বিজনেস ডেভেলপমেন্ট কনাসালট্যান্ট কৃষিবিদ মো. আখতারুজ্জামান। তিনি তার প্রবন্ধে অত্যাধুনিক ইউরোপিয়ান প্রযুক্তির প্রসেসিং প্লান্টের মাধ্যমে "Green Chicken" উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের নানা বিষয়গুলি উপস্থাপন করেন।

The People’s University of Bangladesh এবং Ag Agro Foods এর যৌথ আয়োজনে সেমিনারে ফ্যাকাল্টির শিক্ষকবৃন্দ, এজি এগ্রো ফুডস লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) জনাব এ এম এম নুরুল আলম, বায়োকেয়ার এগ্রো লিমিটেডের ন্যাশনাল সেলস্ ম্যানেজার মো: শরীফ হোসেন, সিনিয়র এসিস্ট্যান্ট সেলস্ ম্যাানেজার ডা. পলাশ বসাক, এগ্রিলাইফ২৪ ডটকমের সম্পাদক কৃষিবিদ মো: শফিউল আজমসহ বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করেন।
 
নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ হিসেবে ব্রয়লার ও ডিম সকলের কাছে আরো গ্রহনযোগ্য করে তুলতে কাজ করে চলেছে এজি এগ্রো ফুডস লিমিটেড। সকলের মাঝে পোল্ট্রিজাত পণ্য বিশেষ করে ব্রয়লার গ্রহনের হার বাড়াতে হলে এর পুষ্টিগুণ ও উৎপাদন প্রক্রিয়াগুলি নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে বলে মনে করেন সেমিনারে আগত শিক্ষক ও সচেতন ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ।