Saturday, 24 February 2018

 

মদিনা ফিডের আয়োজনে বরগুনায় গবাদিপ্রাণি পালন শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:দেশে ডেয়রী খামারের পরিধি দিন দিন বেড়ে চলেছে। বিশেষ করে দক্ষিনাঞ্চলের বরগুনা জেলায় প্রান্তিক পর্যায়ে গড়ে উঠেছে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ডেয়রী খামার। এসব খামারীদেরকে কারিগরী প্রশিক্ষন দ্বারা প্রশিক্ষিত করে তুলতে পারলে কর্মসংস্থানের পাশাপাশি খামারগুলো লাভজনক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।

এসব দিক লক্ষ রেখে দ্রুত বিকাশমান মদিনা ফিডের আয়োজনে বরগুনায় গবাদিপ্রাণি পালন বিষয়ক এক সেমিনারের আয়োজন করে কোম্পানিটি। গত ২৭ জানুয়ারী শনিবার সকাল ১০টায় বরগুনা সদরের স্থানীয় একটি কনভেনশন সেন্টারে দিনব্যাপি এ কারিগরী সেমিনারে অত্র এলাকার প্রায় ৬০ জনের মতো ডেয়রী খামারী অংশগ্রহন করেন।

মদিনা ফিডের স্থানীয় পরিবেশক জনাব মো: নাসিমের সভাপতিত্বে কর্মশালায় কারিগরী বক্তব্য রাখেন কলাপাড়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা.  মো: হাবিবুর রহমান। এছাড়া মদিনা ফিডের পক্ষে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন কোম্পানীর জেনারেল ম্যানেজার কৃষিবিদ জনাব মো: এ কে এম শামসুল আলম, ডিজিএম মার্কেটিং জনাব মঞ্জুর আহমেদ প্রমুখ।

কারিগরী বক্তব্যে বক্তরা গবাদিপ্রাণি পালনের নানা কারিগরী দিকগুলি তুলে ধরেন। জাত নির্বাচন থেকে, বাসস্থান, টীকা প্রদান, রোগ্যাি প্রতিরোধে করণীয়, খাদ্য ব্যবস্থাপনা বিশেষ করে পুষ্টিকর দানাদার রেডি ফিড খাওয়ার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন বক্তারা। আলোচকরা বলেন সুষম দানাদার খাদ্য গবাদি প্রাণির উৎপাদন বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখে। কাজেই গতানুগতিক ফিড থেকে বেরিয়ে রেডি ফিড খাওয়ানোর পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞ বক্তারা।

উল্লেখ্য দক্ষিনাঞ্চলের বরগুনা জেলায় ডেয়রী শিল্প বিকাশের যথেষ্ট সম্ভাবনা বিদ্যমান। এলাকায় রয়েছে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অসংখ্য খামার। এসব খামারের মালিক ও কর্মচারীদের কারিগরী সহায়তা দিতে পারলে ব্যাপক কর্মসংস্থানের পাশাপাশি এলাকার কৃষি অর্থনীতির সার্বিক চিত্র বদলে যাবে। সরকারী পর্যায়ে সহযোগিতা, সহজে এবং সহজ শর্তে ব্যাংক ঋণ প্রাপ্তি তাদের ডেয়রী খামারগুলিকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে বলে কর্মশালায় আগত খামারীরা অভিমত ব্যক্ত করেন।