Saturday, 18 November 2017

 

সমবায়ভিত্তিক উৎপাদনশীল প্রকল্প প্রণয়ন করতে হবে-এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী

কৃষি অর্থনীতি ডেস্ক:এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, সমবায় খাতের হৃতগৌরব পুনরুদ্ধার ও বিকশিত করতে সমবায়ভিত্তিক উৎপাদনশীল ও কর্মমুখী নতুন নতুন প্রকল্প প্রণয়ন করতে হবে। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে গ্রামীণ বেকার যুবক-যুবতী ও হতাশাগ্রস্ত বিপুল জনগোষ্ঠীকে সমবায় সমিতিতে নিবন্ধিত করে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্যবিমোচন তথা জাতীয় আর্থসামাজিক উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় নিয়ে আসা সম্ভব হবে।

প্রতিমন্ত্রী মঙ্গলবার ঢাকায় পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ এবং এর অধীনস্থ বিভিন্ন সংস্থার প্রকল্পসমূহের পর্যালোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এ সময় বিভাগের সচিব ড. প্রশান্ত কুমার রায় সহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানসলালিত বিশেষায়িত প্রকল্প হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এ প্রকল্প কাজে কারো কোনো গাফিলতি বা শৈথিল্য বরদাশ্ত করা হবে না। তিনি পল্লি জনপদ, মিল্কভিটার আধুনিকায়ন ও পল্লি দারিদ্র্যবিমোচন কর্মসূচির আইসিটি প্রকল্পসহ চলমান জনকল্যাণকর কর্মসূচিসমূহ নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন। তিনি প্রকল্পের কাজের স্বচ্ছতা ও অপচয় রোধে ই-টেন্ডারিং ব্যবস্থা বজায় রাখা, শূন্য পদ পূরণ ও সমধর্মী এক বা একাধিক প্রকল্প গ্রহণ না করার নির্দেশ দেন।

বিভাগের সচিব ড. প্রশান্ত কুমার রায় বলেন, প্রকল্প অধীন কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সময়োপযোগী প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক জ্ঞানার্জন করতে হবে। এ অর্জনসমুহ কর্মক্ষেত্রে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে জনাকাক্সক্ষা পূরণ করতে হবে। প্রকল্প প্রণয়নের পূর্বে অবশ্যই ফিজিবিলিটি স্টাডি সম্পন্ন করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তর কর্মসূচিকে এগিয়ে নিতে প্রকল্প কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অধিকতর সৎ, দক্ষ ও আন্তরিক হতে হবে।-পিআইডি