Sunday, 27 May 2018

 

বিদেশ থেকে মাছ আমদানি নয়-নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি

কৃষি অর্থনীতি ডেস্ক:দেশি মাছের ওপর জনগণের আস্থা বাড়াতে হবে এবং বিদেশ থেকে কোনো মাছ আমদানি নয়। সমুদ্রের মাছ আহরণ, মাছ ধরার জন্য উন্নত জাহাজ ও যন্ত্রপাতি ক্রয়সহ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের আধুনিকায়নে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদাপ্রাপ্তি উপলক্ষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ২৫ মার্চ এক নাগরিক সংলাপে মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, অবারিত মাছ, খনিজসম্পদ, শ্যাওলাসহ যাবতীয় সম্পদকে করায়ত্ত করতে হবে এবং টেকসই উন্নয়নে কাজে লাগাতে হবে। সমুদ্রসম্পদসহ মৎস্যসম্পদ আহরণে আমাদের উন্নত জাহাজ-যন্ত্রপাতি এবং প্রযুক্তির দরকার। সরকার এমভি মীন সন্ধানী নামক যে সমুদ্রগবেষণা ও জরিপ জাহাজ দিয়ে মৎস্যসম্পদের জরিপ চালাচ্ছে, তার সক্ষমতাও বাড়াতে হবে। মোট কথা, মৎস্যখাতের টেকসই উন্নয়ন এবং স্বয়ংসম্পূর্ণতা ধরে রাখতে হলে বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দের অপচয়রোধ, নির্ধারিত প্রকল্পের মেয়াদ দীর্ঘায়িত না করা, দীর্ঘস্থায়ী পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা গ্রহণের মাধ্যমে ভূমি, পানি, বন ও পরিবেশ, স্বরাষ্ট্রসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সাথে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

দেশে রপ্তানিযোগ্য আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন মাছ, মাংস ও দুধের পর্যাপ্ত উৎপাদনের মাধ্যমে যাবতীয় ঘাটতিপূরণ এবং আমদানিকৃত গুঁড়োদুধ ও মাছকে নিরুৎসাহিত করার ওপর জোর দিয়ে মন্ত্রী আরো বলেন, উৎপাদিত মাছ, মাংস, দুধ ও ডিমের প্রতি অবশ্যই জনগণের আস্থা সৃষ্টি করতে হবে যাতে আমদানি পণ্যের প্রয়োজনীয়তা ফুরিয়ে যায়।

মন্ত্রণালয়ের সচিব রইছউল আলমের সভাপতিত্বে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব রিয়াল এডমিরাল (অব.) মো. খুরশেদ আলম,  মৎস্য অধিদফতরের ডিজি গোলজার হোসেন, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের ডিজি আইনুল হক, মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রাক্তন ডিজি ড. খান শহীদুল হক, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিমেল সাইসেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ভিসি ড. নীতিশ চন্দ্র দেবনাথসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।