Sunday, 19 November 2017

 

"বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার" শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম,ডেস্ক:ক্রমবর্দ্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য ফসলকে বালাইয়ের আক্রমন হতে সুরক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বালাইনাশক পণ্যের ব্যবহারে সর্বোচ্চ সুবিধা প্রাপ্তি, এবং সম্ভাব্য যেকোনো ঝুঁকি এড়ানোর জন্য ক্রপলাইফ এশিয়া ও সুইস-কনটাক্ট ক্যাটালিস্ট এর সহায়তায় বাংলাদেশ ক্রপ প্রোটেকশন এসোসিয়েশন’ কতৃক পরিচালিত বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার শীর্ষক প্রকল্পের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের উদ্দেশ্যে একটি কর্মশালা গত ২০ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে কৃষিবিদ ইনষ্টিটিউশন বাংলাদেশ এর কনভেনশন হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিসিপিএ’র চেয়ারম্যান জনাব রুমান হাফিজ এর সভাপতিত্বে আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অথিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সম্মানিত পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ), জনাব কৃষিবিদ মোঃ মনজুরুল হান্নান। উক্ত আয়োজনে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সম্মানিত পরিচালক (উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং), কৃষিবিদ জনাব মোঃ গোলাম মারুফ, শের ই বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ কামাল উদ্দিন, সুইস কনটাক্ট ক্যাটালিষ্ট এর ক্যাপিটালাইজেশন প্রধান জনাব গুপ্তা বাহাদুর বানজারা বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্যে বিসিপিএ’র চেয়ারম্যান জনাব রুমান হাফিজ খাদ্য নিরাপত্তায় বালাইনাশকের গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা এবং বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার উৎসাহিত করতে বিসিপিএ’র বিভিন্ন উদ্যোগ তুলে ধরেন এবং বিসিপিএ’র বিভিন্ন প্রকল্প কার্যক্রমে সহায়তা প্রদান করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

কর্মশালায় বিসিপিএ’র সেক্রেটারী জেনারেল জনাব কৃষিবিদ মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন বর্তমান বাস্তবতার প্রেক্ষিতে বালাইনাশকের প্রয়োজনীয়তা ও বালাইনাশকের নিরাপদ ও দায়িত্বশীল ব্যবহার সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট সকলের সচেতনতা তৈরীতে গণমাধ্যমকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। জনাব গুপ্তা বাহাদুর বানজারা,  ক্যাপিটালাইজেশন প্রধান, সুইস কনটাক্ট ক্যাটালিষ্ট, বিসিপিএ’র সাথে যৌথভাবে পরিচালিত বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার শীর্ষক প্রকল্পের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন এবং এ প্রকল্পের বিভিন্ন সফলতার উপর আলোকপাত করেন।

কর্মশালায় শেকৃবি ভিসি প্রফেসর ডঃ কামাল উদ্দিন কৃষক পর্যায়ে বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার সম্পর্কে সচেতনতা তৈরীর জন্য দক্ষ মানব সম্পদ উন্নয়ন এর উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। কৃষিবিদ জনাব মোঃ গোলাম মারুফ, পরিচালক(উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং), কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বালাইনাশক কোম্পানী সমূহকে পরিবেশ বান্ধব রাসায়নিক ও জৈব বালাইনাশক বিপণন সম্প্রসারণ করার জন্য অনুরোধ জানান।

কর্মশালার প্রধান অতিথি জনাব কৃষিবিদ মোঃ মনজুরুল হান্নান, সম্মানিত পরিচালক(প্রশাসন ও অর্থ), কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর উল্লেখ করেন যে, সরকারী, বেসরকারী, উন্য়ন সংস্থা ও কৃষকের নিরলস প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জন করেছে তবে দেশে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন নিশ্চিত করতে বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার নিশ্চিত করা খুবই জরুরী। তিনি বিসিপিএ কতৃক পরিচালিত বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার কার্যক্রম সম্প্রসারণে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

কর্মশালায় কৃষিবিদ জনাব মাহবুব রহমান, কনভেনর স্টুয়ার্ডশিপ সাব-কমিটি, বিসিপিএ. কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। তিনি বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার শীর্ষক প্রকল্পের বিভিন্ন কার্যক্রম ও ইহার ফলাফল উল্লেখ করেন এবং ভবিষ্যতে ব্যাপক জনগোষ্ঠীর মধ্যে বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার সম্পর্কিত সচেতনতা তৈরীর কিছু উপায় তুলে ধরেন।

কর্মশালায় প্রকল্প কার্যক্রম সম্পর্কিত একটি ডকুমেন্টরী চিত্র প্রদর্শন করা হয় এবং প্রশিক্ষণ গ্রহনকারী কৃষক, স্প্রেম্যান, মহিলা কৃষক , বালাইনাশক বিক্রেতা, বালাইনাশক কোম্পাীর কর্মকর্তা ও প্রশিক্ষনে অংশগ্রহনকারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা তাদের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। কর্মশালায় বাংলাদশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষকমন্ডলী, গবেষণা প্রতিষ্ঠান এর বিজ্ঞানীগন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জৈষ্ঠ কর্মকর্তাবৃন্দ, জাতীয় ও আর্ন্তজাতিক উন্নয়ন সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন গনমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ ও বাংলাদেশ ক্রপ প্রোটেকশন এসোসিয়েশনের সকল সম্মানিত সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় উপস্থিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাবৃন্দ ভবিষতে বালাইনাশকের নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার কার্যক্রম সম্প্রসারণে মূল্যবান পরামর্শ প্রদান করেন।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি