Thursday, 14 December 2017

 

কুকুর মালিকানা উন্নীতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:জাতীয় প্রতিষেধক ও সামাজিক চিকিৎসা কেন্দ্র (নিপসম) –এ আজ কুকুর মালিকানা উন্নীতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। রেবিস ইন এশিয়া ফাউন্ডেশন-বাংলাদেশ (রিয়াফ- বাংলাদেশ) এই সভার আয়োজন করে। সংস্থার চেয়ারপার্সন প্রফেসর ড. বে-নজির আহমেদ সভার মূল বক্তব্য তুলে ধরেন। সভায় জলাতঙ্ক নিয়ন্ত্রণে নির্বিচারে কুকুর নিধন বিষয়ক আলোচনা করা হয়।

বক্তারা বলেন-“নির্বিচারে কুকুর নিধন কোন কিছুর সমাধান নয়। এটি নিঃসন্দেহে অমানবিক ও বিপজ্জনক। পরিবেশ দূষণ ও রোগ সংক্রমণের এটি একটি বড় কারণ। শুধু তাই নয়, নির্বিচারে কুকুর নিধন শিশু ও জনমনে একদিকে যেমন গভীর হতাশা ও আতংকের উদ্রেক করে, অন্যদিকে বাস্তুগত সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে ইঁদুর, শেয়াল, নেকড়ে বা সদৃশ প্রাণীর সংখ্যা ও প্রাকৃতিকভাবে বেঁচে যাওয়া কুকুরে প্রজনন হার অনেক বেড়ে যায়।”

সভার আয়োজকরা কুকুর নিধনের প্রধানতম টার্গেট জলাতঙ্ক রোধে গণটিকাদানের পাশাপাশি তাদের মালিকানা উন্নীতকরণ প্রয়োজন বলে মনে করেন। বেওয়ারিশ কুকুর গুলোকে নির্দিষ্ট ব্যক্তি, গোষ্ঠী, ক্লাব, প্রতিষ্ঠান, সংস্থা নির্বিশেষে মালিকানা প্রদান করা যেতে পারলে বিশেষ ট্রেনিং পূর্বক নিরাপত্তার কাজে কুকুরের বহুল ব্যবহার কুকুরের সংখ্যা সংকটকে কাটিয়ে সম্পদে রূপান্তর সম্ভব বলে তারা বিশ্বাস করেন। তাই একটি সুপরিকল্পিত প্রকল্পের আওতায় দেশে কুকুর মালিকানা উন্নীতকরণ–এর গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন দিক নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ আলোচনা করা হয়।

এতে ঢাকাস্থ বিভিন্ন প্রাণিহিতৈষী সংস্থার শীর্ষ প্রতিনিধিগণ এবং স্বাস্থ্য ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। রিয়াফ বাংলাদেশ প্রতিনিধি ডা. এম. মুজিবুর রহমান সভাটি সঞ্চালন করেন।