বাকৃবিতে জব্বারের মোড়ের সকল দোকান বন্ধের সিদ্ধান্ত
Friday, 22 September 2017

 

বাকৃবিতে জব্বারের মোড়ের সকল দোকান বন্ধের সিদ্ধান্ত

বাকৃবি প্রতিনিধি:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) মাদকসহ আটকের অভিযোগে রেল ক্রসিং সংলগ্ন একটি দোকান বন্ধ করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। দোকানটি খুলে দিতে মঙ্গলবার থেকে ওই এলাকার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সকল দোকান বন্ধ রাখতে প্রচারপত্র বিলি করে। প্রচারপত্রে, পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত দোকান বন্ধের আহবান জানানো হয়।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গোপন সূত্রের মাধ্যমে মিলন হোটেল থেকে গত ২৪ ফ্রেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে  চার বোতল বাংলা মদ উদ্ধার  করে । এসময়  হোটেলের অভিযুক্ত দুই কর্মচারী বিশ্বনাথ চন্দ্র সূত্রধর (৩৫) ও দুলাল মিয়াকে (৩০) আটক করে পুলিশ। পরে লিখিত মুচলেকা নিয়ে অভিযুক্ত দুজনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

দোকান ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলম বলেন, ‘দোকানের মালিক মাদকের সাথে জড়িত নয়, তাই আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে দোকানটি খুলে দিতে অনুরোধ জানিয়েছিলাম। কিন্তু প্রশাসন অপারগতা প্রকাশ করায় আমরা রেল ক্রসিং এলাকার পাশ্ববর্তী দোকান বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, এখানে প্রায় ৯৮টি দোকান রয়েছে। দোকান বন্ধ থাকলে চরম বিপাকে পড়বেন  তারা। কারণ জব্বারের মোড়ের হোটেল গুলোই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খাওয়া-দাওয়া, শিক্ষা উপকরণ ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনাকাটার প্রধান স্থান।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম জাকির হোসেন বলেন, বিষয়টি মাদকের সাথে সম্পৃক্ত, তাই তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরপরেও যদি তারা শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে ভোগান্তিরসৃষ্টি করে, তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কঠোর সিদ্ধান্ত নিবে ।