Tuesday, 21 November 2017

 

রাবিতে গণহত্যা দিবস এবং স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচি

ক্যাম্পাস ডেস্ক:আগামী শনিবার ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস এবং ২৬ মার্চ রবিবার স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভিন্ন ভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। গণহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে আছে-২৫ মার্চ সন্ধ্যা ৬:৪৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও প্রদীপ প্রজ্জ্বালন এবং সন্ধ্যা ৭:১৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় গণকবর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও প্রদীপ প্রজ্জ্বালন।

২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের আয়োজনে রয়েছে রাত ১২:০১ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ; ভোরে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন; সকাল ৬:৩০ মিনিটে প্রভাত ফেরী ও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল ৮টায় নিজ নিজ কার্যালয়ে অফিসার সমিতি, সহায়ক কর্মচারী সমিতি, সাধারণ কর্মচারী ইউনিয়ন ও পরিবহন কর্মচারী সমিতির আলোচনা সভা এবং বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান। এছাড়া রয়েছে সকাল ৮:৩০ মিনিটে শেখ রাসেল মডেল স্কুলে বিভিন্ন অনুষ্ঠান এবং কেন্দ্রীয় ক্যাফেটরিয়ায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রাবি ইউনিট কমা-ের আলোচনা সভা ও সকাল ৯:৩০ মিনিটে সাবাস বাংলাদেশ চত্বরে কুচকাওয়াজ।

দিবসের কর্মসূচিতে আরো আছে, সকাল ১০:৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়ামে শিক্ষক বনাম কর্মকর্তা প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ, বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও হল মসজিদসমূহে বিশেষ মোনাজাত, বিকাল ৩:৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়ামে সহায়ক, সাধারণ ও পরিবহন কর্মচারী সমিতির প্রীতি ফুটবল ম্যাচ, ৪:৩০ মিনিটে ছাত্রদের প্রীতি ফুটবল ও ছাত্রীদের প্রীতি হ্যান্ডবল/ভলিবল ম্যাচ। বিকেল ৫টায় অনুষ্ঠিত হবে শিক্ষক বনাম কর্মকর্তা প্রীতি ফুটবল ও ভলিবল ম্যাচ, বিকেল ৫:৩০ মিনিটে উপাচার্য ভবনে রাবির শহীদ পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে উপাচার্যের শুভেচ্ছা বিনিময় এবং সন্ধ্যা ৭টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

ঐদিন শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা সকাল ৭টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য খোলা থাকবে।