Tuesday, 12 December 2017

 

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে সন্ধানীর বার্ষিক সম্মেলন

বিধান মুখার্জী, গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃসড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন-রাজনৈতিক মতাদর্শে ভিন্নতা থাকতেই পারে কিন্তু পেশাগত দায়িত্ব পালনে তার প্রভাব কোনভাবেই কাম্য নয়। ১৩ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পিএইচএ মিলনায়তনে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের সন্ধ্যানী ইউনিট কর্তৃক আয়োজিত ৩৬ তম সন্ধানীর কেন্দ্রীয় বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. লায়লা পারভীন বানু, রেজিস্ট্রার মোঃ দেলোয়ার হোসেন, গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. ফরিদা আদিব খানম ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সমন্বয়ক ডা. মনজুর কাদির আহমেদ এসময় বক্তব্য রাখেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন- রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যেই শুধু নয় দেশের সর্বত্রই বিভাজন শুরু হয়েছে। কোথাও সমঝোতার কোন সেতু নেই। একজন ব্যক্তির রাজনৈতিক আদর্শ থাকতে পারে কিন্তু দায়িত্ব পালনে কোন ধরনের বিভাজন করা যাবে না। একজন চিকিৎসক কখনই আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপি'র চিকিৎসক হতে পারে না। তাকে দলমতের উর্ধ্বে উঠে মানবিক চিকিৎসক হতে হবে। আর সন্ধানী একজন মানবিক চিকিৎসক তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তিনি এসময় ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক থেকে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশের সড়ক সংস্কারেরও আশ্বাস দেন।

এর আগে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মাঠে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে গার্ড অব অনার প্রদান করে গণপাঠশালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে মন্ত্রী পায়রা উড়িয়ে ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সন্ধানীর কেন্দ্রীয় বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। পরে সন্ধানীর বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা নিজ সংগঠনের সঙ্গীতের সঙ্গে স্ব স্ব ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন। পরে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে একটি র‌্যালী গণ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু হয়ে পিএইচএ গিয়ে শেষ হয়। বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ থেকে আসা সন্ধ্যানীর নেতাকর্মীরা এতে অংশ নেন।