Tuesday, 19 September 2017

 

মনোমুগ্ধ সাজে ক্যাম্পাস রাবির ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আগামীকাল

এস.এম.আল-আমিন,রাবি সংবাদদাতা: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ৬৫ বছরে পর্দাপণ করছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার। দেশের দ্বিতীয় ও উত্তরবঙ্গের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে নানা কর্মসূিচ হাতে নিয়েছে রাবি প্রশাসন। এর মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়কে সাজানো হয়েছে মনোরম সাজে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় প্রশাসন ভবন চত্বরে পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন-ফেস্টুন ও পায়রা উড়ানোর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আনুষ্ঠানিকতা শুরু । আয়োজনে আরো রয়েছে বৃক্ষরোপণ, শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা। বেলা ১১টায় সিনেট ভবনে উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি থাকবেন রাবির সাবেক উপাচার্য এবং যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত প্রফেসর এম সাইদুর রহমান খান। অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন রাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর মো. নজরুল ইসলাম এবং ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের প্রফেসর রকীব আহমদ।

প্রসঙ্গত, ১৯৫৩ সালের ৩১ শে মার্চ প্রাদেশিক পরিষদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইন পাস হয়। একই বছরের ৬ জুলাই ড. ইৎরাত হোসেন জুবেরীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য করে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। সেই সময় পদ্মাপাড়ের বড় কুঠি ও রাজশাহী কলেজের বিভিন্ন ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৬১ সালে বড় কুঠি থেকে নয়নাভিরাম মতিহারের এ সবুজ চত্বরে আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম। রাজশাহী শহর থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে পদ্মা নদীর তীর ঘেঁষে অবস্থিত এ ক্যাম্পাসটি ৩০৩ দশমিক ৮০ হেক্টর জমিতে স্থাপিত। শুরুতে দর্শন, ইতিহাস, বাংলা, ইংরেজি, অর্থনীতি, গণিত ও আইন বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স দিয়ে যাত্রা শুরু হলেও বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়টি অনুষদের অধীনে ৫০টি বিভাগ রয়েছে। তা ছাড়া উচ্চতর গবেষণার জন্য রয়েছে পাঁচটি ইনস্টিটিউট। মোট শিক্ষক রয়েছে প্রায় সাড়ে ১২শ এবং শিক্ষার্থী রয়েছে প্রায় ৩৩ হাজার।