Thursday, 14 December 2017

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় : ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন দিবস পালিত

ক্যাম্পাস ডেস্ক:“বাংলাদেশের ছাত্র-শিক্ষক সমাজ বাঙালি জাতির সকল আন্দোলন-সংগ্রামে গৌরবময় ভূমিকার অধিকারী। তারই ধারাবাহিকতায় ২০০৭ সালের আগস্টে দেশে বিরাজমান নিপীড়নমূলক পরিস্থিতিতে ঢাকা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য শিক্ষাঙ্গন প্রতিবাদী হয়ে উঠে। তৎকালীন রাষ্ট্রক্ষমতা নিয়ন্ত্রণকারী শক্তি সেই প্রতিবাদ দমন করতে ছাত্র-শিক্ষকদের গ্রেফতার করে নির্যাতন-হয়রানির পথ বেছে নেয়। তাদের বিরুদ্ধে চাপিয়ে দেয় হয়রানিমূলক মামলা। কিন্তু এক সময় প্রতিষ্ঠিত হয় সত্য, সকল ষড়যন্ত্র থেকে ছাত্র-শিক্ষক সমাজ মুক্ত হয়। সেই প্রতিবাদ ত্বরান্বিত করে দেশে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকার পুনঃপ্রতিষ্ঠার পথ।” রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় আলোচকবৃন্দ এ কথাগুলো বলেন।

 

সভায় আলোচকগণ সেদিনের সেই নিপীড়ন ও হয়রানির ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেন। অন্যতম আলোচক নির্যাতিত শিক্ষক অধ্যাপক দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ঘটনাকে একটি বড় ষড়যন্ত্র বলে উল্লেখ করেন। তিনি ইতিহাস বিকৃতি রোধে একটি কমিশন গঠন ও সেই ঘটনার পূর্বাপর উদ্ঘাটন করে তার প্রতিবেদন প্রকাশের দাবি জানান।

আজ বুধবার ২০০৭ সালের আগস্টে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতনের বার্ষিকী স্মরণে ‘ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন দিবস’ পালন করা হয়। এই উপলক্ষে এদিন বেলা ১১টায় সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত হয় নির্যাতিত ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা। আলোচনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে নির্যাতিত শিক্ষার্থী বর্তমানে রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ-সদস্য মো. আয়েন উদ্দিন, নির্যাতিত শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী সারওয়ার জাহান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মো. সাদেকুল ইসলাম বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিন। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর সায়েন উদ্দিন আহমেদ স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে উপাচার্য নির্যাতিত হয় নির্যাতিত ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পুস্পস্তবক উপহার দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মুহাম্মদ এন্তাজুল হক অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন।-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি