Thursday, 14 December 2017

 

“স্কিন গ্রাফটিং”-এ পবিপ্রবির সাফল্য

মো: মুস্তফিজুর রহমান পাপ্পু পবিপ্রবি:চামড়া প্রতিস্থাপন- তাও আবার গবাদী প্রাণিতে। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এনিম্যাল সাইন্স ও ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদ-এর ভেটেরিনারি টিচিং হাসপাতাল-এ। ৯ মে (মঙ্গলবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি ক্লিনিক সূত্রে এ তথ্য পাওয়া যায়।

পরীক্ষামূলক হিসেবে অত্র হাসপাতালের অফিসার ইন-চার্জ ড. দিব্যেন্দু বিশ্বাস অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের খামারের দুইটি ছাগলকে নির্বাচিত করেন সফলভাবে চামড়া প্রতিস্থাপন কার্য সম্পাদন করেন। ডিভিএম ১১ তম ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে তিনি একটি টিম গঠন করেন এবং প্রাথমিকভাবে দ্ইুটি ছাগলে চামড়া প্রতিস্থাপন পরীক্ষণ সফলভাবে সম্পন্ন করেন। প্রায় দুই ঘন্টা তিনি ছাত্রদের নিয়ে চামড়া প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন। যদিও প্রাথমিক পর্যায়ে একই প্রাণির চামড়া তারই দেহের অন্য স্থানে লাগানো হয়।

অপারেশনের পর প্রাণিগুলোকে নিবির পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। অপারেশন করার প্রায় ১২ দিন পর সেলাই কাটা হয়। অপারেশনের পর পাঁচদিন পর্যন্ত পেনিসিলিন এন্টিবায়োটিক ও ব্যাথানাশক ঔষধ দেওয়া হয়। এখন তারা স্বাধীনভাবে চলাফেরা করছে এবং সুস্থ আছে।

ড. দিব্যেন্দু বিশ্বাস বলেন গবাদী প্রাণিতে বর্তমানে দূর্ঘনার প্রবনতা বেড়ে গেছে এবং প্রতি ক্ষেত্রেই দেহের চামড়া মারাত্বক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে যার কারনে প্রাণিসমূহ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে থাকছে। চামড়া প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে গবাদী প্রাণিসহ অন্যান্য প্রাণিকে সারিয়ে তোলা সম্ভব। তিনি আরো বলেন খুব বেশী জায়গা ক্ষতিগ্রস্থ না হলে ঔ প্রাণির চামড়া দিয়েই ঔ ক্ষতস্থান সারিয়ে তোলা সম্ভব। আর যদি খুব বেশী পরিমান জায়গা ক্ষতি গ্রস্থ হয় সেক্ষেত্রে একই প্রজাতীর প্রাণির অন্য একটি থেকে চামড়া প্রতিস্থাপন করা হয় তবে সেটির প্রতিস্থাপিত চামড়া ৎবলবপঃরড়হ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। একই প্রজাতীর অন্য প্রাণিতে চামড়া প্রতিস্থাপন বিষয়ে তিনি কাজ করছেন। উল্লেখ্য, উচ্চশিক্ষা মান উন্নয়ন প্রকল্প-এর অর্থায়নে অত্যাধুনিক সার্জারী গবেষণাগারে উক্ত পরীক্ষণটি সম্পন্ন করেন।