Thursday, 23 November 2017

 

জৈন্তাপুর উপজেলায় সাইট্রাস উন্নয়ন প্রকল্পের সেমিনার অনুষ্ঠিত

কৃষি গবেষণা ডেস্ক:সাইট্রাস উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় সাইট্রাস গবেষণা কেন্দ্রের হল রুমে সম্প্রতি দিনব্যাপী এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সিলেট অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মো. আলতাবুর রহমান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, পুষ্টিমানের দিকে লেবু জাতীয় ফসল অতি উপকারি। পাহাড়, টিলা সহ সমতল ভূমিতেও এসব ফলফলাদি চাষ করা যায়। লেবুজাতীয় গাছ অনেকাংশেই পানি সহনশীল। তাই পাহাড়, টিলা, পতিত, এমনকি এক ফসলি জমিতে লেবুজাতীয় ফসল উৎপাদন করার জন্য তাগিদ দেন। তাছাড়া বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার জন্য লবণাক্ত সহনশীল লেবুজাতীয় ফসলের জাত উদ্ভাবনের জোড় তাগিদ দেন।

সাইট্রাস গবেষণা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক অফিসার কৃষিবিদ ঝুটন সরকারের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কৃষিবিদ মো. লুৎফর রহমান, পিএসও, সাইট্রাস গবেষণা কেন্দ্র, জৈন্তাপুর, সিলেট। সেমিনারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে কারিগরী সেশন অনুষ্ঠিত হয়।

টেকনিক্যাল সেশনে প্রকল্প পরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. আজমত উল্লাহ বলেন রোগের কারাগার থেকে মুক্তি পেতে পুষ্টিজাতীয় খাবার খান; পুষ্টির জন্য ফল খান, এক্ষেত্রে লেবুজাতীয় ফসল বিশাল ভূমিকা পালন করে। তিনি তার টেকনিক্যাল সেশনে সাইট্রাস উন্নয়ন প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন। তিনি বলেন, লেবুজাতীয় ফল উৎপাদনে অঞ্চলভিত্তিক প্রযুক্তি উদ্ভাবন, জার্মপ্লাজম সংগ্রহ, মাতৃগাছ সনাক্তকরণ ও নির্বাচন, লেবু সংগ্রহোত্তর ব্যবস্থাপনা প্রযুক্তি উদ্ভাবনসহ লেবুর বাজার ব্যবস্থাপনা উন্নত করাই এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ মো. জাহেদুল হক, উপপরিচালক, ডিএই, সুনামগঞ্জ; কৃষিবিদ ড. মো. আজমত উল্লাহ, প্রকল্প পরিচালক, সাইট্রাস উন্নয়ন প্রকল্প, বারি; কৃষিবিদ মো. জসীম উদ্দিন, পিএসও, বারি, আকবরপুর, মৌলভীবাজার; কৃষিবিদ ড. মো. শহীদুল ইসলাম, অধ্যাপক, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।  

সেমিনারে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সিলেট অঞ্চলের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের অফিসার, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর বিজ্ঞানীবৃন্দ, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের অফিসার, কৃষি তথ্য সার্ভিস, হর্টিকালচার সেন্টারের অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।

-কৃষি তথ্য সার্ভিসের সৌজন্যে