Saturday, 21 April 2018

 

জাতীয় স্বার্থে পোল্ট্রি শিল্পের জন্য কমিশন গঠন এখন সময়ের দাবী

ডা.মো. সারোয়ার জাহান: বড় দুঃসময় পার করছি আমরা যারা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র খামার মালিক, ফিডমিল মালিক, হ্যাচারী মালিক, মেডিসিন কোম্পানি মালিক, কেমিষ্ট, পরিবেশক সহ এবং এই শিল্পের সাথে জড়িত লক্ষ লক্ষ শ্রমজীবী মানুষ। ৯০ এর দশক থেকে তিল তিল করে গড়ে উঠা প্রাণিসম্পদের এ বৃহৎ শিল্পটি আজ বড় অসহায়। যাদের কাছে আমরা আশা করি কিছু একটা করার তাদের নিরব ভূমিকা এ সমস্যাকে আরও প্রকট করে তুলেছে।

সোনালী আঁশের সোনার দেশ, পাটপণ্যের বাংলাদেশ

কৃষিবিদ মোঃ আল-মামুন:পাট বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যময় আঁশ উৎপাদনকারী অর্থকরী ফসল। পাট চাষ ও পাট শিল্পের সাথে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি জড়িত। স্বাধীনতার পরও প্রায় দেড় যুগ ধরে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে পাটের অবদানই ছিল মুখ্য। পাট উৎপাদনকারী পৃথিবীর অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের পাটের মান সবচেয়ে ভাল এবং উৎপাদনের বিবেচনায়য় ভারতের পরে দ্বিতীয় স্থানে আছে বাংলাদশে।

ভাবনা-দুর্ভাবনা-হাওরবাসীর জন্য প্রার্থনা

এস এম মুকুল:বুকভরা আশা, চোখভরা স্বপ্ন নিয়ে-সোনার ফসল ঘরে তুলবার দিনক্ষণ গুণছেন হাওরবাসী। হাওরবাসির একমাত্র অবলম্বন বোরো' ফসলটি ঠিকঠাক মতো ঘরে তুলে আনতে পারবে তো। দিন যত ঘনিয়ে আসছে, বাড়ছে তত আতঙ্ক। দিনভর যে ফসল নিয়ে স্বপ্ন বুনছেন কৃষক-রাতেই সেই স্বপ্নরা যেন করছে দুঃস্বপ্নের হাতছনি দিয়ে ডাকছে! খবরে প্রকাশ হাওরের বাঁধগুলোর কাজ এখনো শেষ হয়নি। যেটুকুন বা হয়েছে-তাও কি ঠিকঠিক মতো হয়েছে? নাকি এইটুকুন পানির তোড়েই আবার ভেসে যাবে হাওরবাসীর স্বপ্ন!এমন অজানা আশঙ্কা আমার মতো হাওরপ্রেমীদের মনেও।

বিপুল সম্ভাবনায় পাট শিল্পের পুণর্জাগরণ

এস এম মুকুল:পাট বাংলাদেশের ঐতিহ্য ও অর্থনৈতিক আভিজাত্যের সাথে সম্পৃক্ত একটি অনন্য সম্ভাবনার শিল্প নাম। একসময় পাট ছিলো আমাদের জাতীয় অর্থনীতির প্রধানতম অর্থকরী ফসল। নদীমাতৃক বাংলাদেশে বর্ষায় নৌপথে চলাচলে দেখা যেত পাটক্ষেতে পানি আর বাতাসের ঢেউ দোলানোর খেলা।

বাউরেস-এর বার্ষিক গবেষণা অগ্রগতি বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এ পর্যন্ত সমাপ্ত গবেষণা ২০৬৪ টি
গবেষণা ডেস্ক:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) ১৫ মার্চ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সম্মেলন হলে দুদিনব্যাপী বাকৃবি রিসার্চ সিস্টেমের (বাউরেস) ২০১৬-১৭ বর্ষের গবেষণা অগ্রগতি বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধন করা হয়। সম্মেলনে বাউরেসের পরিচালক অধ্যাপক ড. এমএএম ইয়াহিয়া খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান, প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আলী আকবর।

Towards more complex diets in layers

News provided by, Kemin Industries:The production of eggs is moving faster and faster due to an increased awareness of animal welfare. In the last 10 years, egg producers have seen great changes in the way laying hens are managed and allocated in farms. It is already well accepted that egg production in cages will soon be a thing of the past in Europe. Moreover, beak trimming practice has seen its days as more and more EU countries has already banned it or are in process to do so.

গবাদি প্রাণির অ্যান্টিবায়োটিকের বিকল্প প্লানটেইন ঘাস

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি:মানিকগঞ্জের গিলন্ড গ্রামে ‘প্লানটেইন ঘাস ও নিরাপদ প্রাণি খাদ্য’ শীর্ষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) পশুপুষ্টি বিভাগ শুক্রবার ওই মাঠ দিবসের আয়োজন করে।

বাকৃবি মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ৫০ বছর

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি:উপমহাদেশের প্রথম উচ্চতর মৎস্য শিক্ষা ও গবেষণার প্রতিষ্ঠান হিসাবে খ্যাত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ। ১৯৬১ সালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার তিনবছর পর ১৯৬৭ সাল থেকে যাত্রা শুরু করেছিল মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ। ২০১৭ সালে এসে বিশ্বমানের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর  গ্রাজুয়েট তৈরির মাধ্যমে সফলতার ৫০ বছরে পদার্পন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অনুষদটি।

মসলা গবেষণা কেন্দ্র, বগুড়ার বিজ্ঞানীদের সাথে মত বিনিময় করলেন কৃষিবিদ জনাব আব্দুল মান্নান এমপি

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:মসলা জাতীয় ফসলের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ কর্ম-পরিকল্পনার উপর মসলা গবেষণা কেন্দ্র, বগুড়ার বিজ্ঞানীদের সাথে মত বিনিময় করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা কৃষিবিদ জনাব আব্দুল মান্নান, সংসদ সদস্য, বগুড়া-১ ও সদস্য, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গত সোমবার ৫ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত এ মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞানী, কর্মকর্তা, কর্মচারী, সাংবাদিকসহ প্রায় ৭০ জন উপস্থিত ছিলেন।

আনন্দ ভ্রমণ

আমি সারাফ নাওয়ার; জয়দেবপুর সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ি। এস.এস.সি পরীক্ষার জন্য স্কুল বন্ধ থাকায় নানুবাড়ি বেড়াতে এসেছি। নানুবাড়ি থেকে আমি আপুর বাসায় । আপুর নাম হাসমিন আপু। দিনটি ছিল ১৮ ই ফেব্রুয়ারী রবিবার, ২০১৮। এই দিনে আমরা বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করেছিলাম।