Friday, 23 February 2018

 

নোবিপ্রবিতে গবেষণাকার্য পরিচালনা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

কামরুল হাসান শাকিম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি:"একজন গবেষক কি পদ্ধতি অবলম্বন করে গবেষণাকার্য পরিচালনা করলে তার নিজের এবং গবেষণাগারের প্রয়োজনীয় যন্ত্রের ক্ষতিসাধন হবে না" প্রতিপাদ্যে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৩৩ বছরে ১৭৭৮ টি গবেষণা বাউরেসের

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:১৯৮৪ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় রিসার্চ সিস্টেম (বাউরেস) প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ৩৩ বছরে ১৭৭৮টি গবেষণা প্রকল্প শেষ করেছে। আজ শনিবার দু’ দিনব্যাপী ২০১৫-১৬ বর্ষের গবেষণা অগ্রগতি বিষয়ক কর্মশালায় এসব তথ্য জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সম্মেলন কক্ষে কর্মশালাটির আয়োজন করা হয়।  আগামীকাল রবিবার পর্যন্ত কর্মশালাটি চলবে।

বাংলাদেশে ডেইরী সেক্টর নিয়ে কিছু স্বপ্ন, কিছু কথা

শাহ এমরান:স্বপ্ন তা সে যেটাই হোক, আমরা ছোট নয়, অনেক বড় করে স্বপ্ন দেখতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি হাতেহাত রেখে এগিয়ে গেলে কোন বাধাই বাধা নয়, যার অসংখ্য প্রমান রেখে গিয়েছেন আমাদের বাংলাদেশের অনেক বড় বড় উদ্যোগক্তারা। কৃষিপ্রধান এই বাংলাদেশে অনেক দেরী করে হলেও ডেইরী সেক্টরে যে বিপ্লব শুরু হয়ে গেছে তা সবাই একবাক্যে মেনে নেবে। এই বিল্পবের পেছনে যেমন রয়েছে তথ্য প্রযুক্তির উতকর্ষের সাধন,  ঠিক তেমন রয়েছে দেশের শিক্ষিত এবং প্রবাসী বেকার জনগোষ্ঠীর নতূন উতসাহ এবং বিনিয়োগ। আমরা সবাই এক হতে পেরেছি এটাই এই মূহুর্তের সব থেকে বড় পাওয়া। সবাই সংবদ্ধ হয়ে যেকোন একটা কাজে উদ্যোগ নিলে সেখানে সফল হওয়া শুধুমাত্র সময়ের ব্যাপার।

সিলেট অঞ্চলের আঞ্চলিক গবেষণা-সম্প্রসারণ পর্যালোচনা ও কর্মসূচী প্রনয়ণ কর্মশালা ২০১৭ অনুষ্ঠিত

কৃষি গবেষণা ডেস্ক:সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজ, জেলরোড, সিলেটের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ২ দিন ব্যাপী সিলেট অঞ্চলের আঞ্চলিক গবেষণা-সম্প্রসারণ পর্যালোচনা ও কর্মসূচী প্রণয়ন কর্মশালা ২০১৭।

বিনা বিল'২০১৭ এবং বারি বিল'২০১৭-তে মহামান্য রাষ্ট্রপতির সম্মতি জ্ঞাপন

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) বিল, ২০১৭ এবং বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি), বিল, ২০১৭ এই ২টি বিলে মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ তাঁর সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। বৃহস্পতিবার সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

“স্কিন গ্রাফটিং”-এ পবিপ্রবির সাফল্য

মো: মুস্তফিজুর রহমান পাপ্পু পবিপ্রবি:চামড়া প্রতিস্থাপন- তাও আবার গবাদী প্রাণিতে। ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এনিম্যাল সাইন্স ও ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদ-এর ভেটেরিনারি টিচিং হাসপাতাল-এ। ৯ মে (মঙ্গলবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি ক্লিনিক সূত্রে এ তথ্য পাওয়া যায়।

বাকৃবিতে গবেষণামূলক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

বাকৃবি প্রতিনিধি:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) ‘রুরাল মেকানিজম-ড্রাইভার ইন এগ্রিকালচার চেঞ্জ এন্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট’ নামে গবেষণামূলক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। বইটির সম্পাদনা করেছেন বাকৃবির প্রথম ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এম. এ. ছাত্তার মন্ডল। সকাল ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সম্মেলন কক্ষে ওই বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংসদে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট বিল-২০১৭ পাস

কৃষি গবেষণা ডেস্ক:কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি করতে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা অব্যাহত রাখতে প্রয়োজনীয় বিধান করে জাতীয় সংসদে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট বিল-২০১৭ পাস হয়েছে। কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বিলটি পাসের প্রস্তাব করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

নতুন নতুন স্থানীয় বাজার সৃষ্টির মাধ্যমে খামারীদের ডিমের ন্যায্য মূল্য প্রাপ্তি সম্ভব-সামিউল আলীম

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:দেশের পোল্ট্রি শিল্পে জড়িত প্রান্তিক পর্যায়ের খামারীরা বৎসরের অধিকাংশ সময়েই ডিমের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হয়। এতে প্রতিনিয়তই প্রান্তিক পর্যায়ের খামারী থেকে শুরু করে স্থানীয় পর্যায়ের ফিড/মেডিসিন ডিলার সেই সাথে কোম্পানি তথা শিল্পের সাথে জড়িত সকলেই আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। সাম্প্রতিক সময়ে ডিমের দরপতন অতীতের যে কোন সময়ের তীব্রতাকেও ছাড়িয়ে গেছে। বিশেষ করে দেশে যখন কোন রাজনৈতিক অস্থিরতা বা অন্য কোন ইস্যু নেই। তবে কেন এই দরপতন?

রবীন্দ্রনাথের দৃষ্টিতে কৃষি ও কৃষিজীবী

কৃষিবিদ মোহাইমিনুর রশিদ:বাংলা সাহিত্যের অগ্রদূত রবি ঠাকুর মূলত কবি, ছোট গল্পকার, উপন্যাসিক, নাট্যকার, গীতিকার, সুরকার, চিত্রশিল্পী হিসেবে পরিচিত। তার আরেকটি পরিচয়, তিনি একজন কৃষক। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জমিদার পুত্র ছিলেন। উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া জমিদারিত্ব চালিয়েছেন। গ্রামে গঞ্জে, মাঠে ময়দানে জমিদারিত্ব চালাতে গিয়ে নিজেও কৃষিকাজের সাথে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত হয়েছিলেন। গ্রামীণ মানুষের আর্থ সামাজিক অবস্থা উন্নয়নকল্পে রবি ঠাকুর কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ করেন। চিন্তা ও কর্মের সমন্বয়ে সনাতন কৃষি ব্যবস্থাপনায়  এনেছেন আধুনিকতা, বিজ্ঞান, শক্তি ও যান্ত্রিকতায় অপরুপ সমন্বয়।