Thursday, 23 November 2017

 

দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক দায়িত্ব পেলেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নাজমুল হক

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগ ইউনিট, দিনাজপুর জেলার অন্তর্গত বিভিন্ন উপজেলা ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রলীগের সাংগঠনিক দায়িত্ব পেলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মো. নাজমুল হক। দায়িত্ব পালনকালে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পরামর্শে দিনাজপুর জেলার ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের সাংগঠনিক কার্যক্রম তদারকি ও দিক নির্দেশনা দিবেন।  

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার মিলনায়তনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপনের প্রস্তুতি সভা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দায়িত্ব বণ্টন অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন তাঁর নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন।  
এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বলেন, ‘সাংগঠনিক ক্ষমতার বিবেচনায় এ দায়িত্ব অর্পন করা হয়েছে। দিনাজপুরের মত একটি বড় জেলায় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক যে দায়িত্ব কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে মো. নাজমুল হক কে দেয়া হয়েছে তা অত্যন্ত আস্থা ও এক নিষ্ঠার সাথে পালন করবে এ আমাদের প্রত্যাশা’।

এ বিষয়ে জানাতে চাইলে নাজমুল হক নিজেকে ছাত্রলীগের একজন কর্মী দাবী করে তাঁর উপর অর্পিত দায়িত্ব প্রদানের জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের এর প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে বলেন, ‘বিজয়ের এ মহান মাসে দিনাজপুরের মত একটি বড় জেলায় ছাত্রলীগের যে সাংগঠনিক দায়িত্ব আমাকে দেয়া হয়েছে তা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পরামর্শ ও দিকনির্দেশনায় স্বানীয় ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে সঠিকভাবে বাস্তবায়নের চেষ্টা করে যাব। এ অঞ্চলের ছাত্রলীগকে আরও সুসংহত ও সুগঠিত করে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের এ বাংলাদেশ বিনির্মানে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা, ডিজিটাল বাংলাদেশের অন্যতম রুপকার, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বপ্নের এ বাংলাদেশ গড়ব। লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আজকের এ মহান বিজয়ের মাসে এ আমাদের অঙ্গীকার ও প্রতিজ্ঞা’।         

সংক্ষিপ্ত জীবনী:
১৯৮৮ সনের ১ জানুয়ারি ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলার চরগোয়াডাঙা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন মো. নাজমুল হক। অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মো. আবেদুল হক ও মাতা ছফুরা খাতুনের চার সন্তানের সর্বকনিষ্ঠ তিনি। শিক্ষা জীবনের প্রতিটি স্তরে তিনি মেধা ও প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন। ২০০৪ সালে তিনি ময়মনসিংহ জেলা স্কুল হতে SSC পাশ এবং ২০০৬ সালে ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ হতে কৃতিত্বের সাথে HSC পাশ করেন।

কলেজে থাকাবস্থায় ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হওয়ার মাধ্যমে সরব রাজনীতিতে পদচারণা করেন ছাত্রলীগের এ নেতা। ২০০৬-০৭ সেশনে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকে ভর্তি হন তিনি। শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের ছাত্র রাজনীতির পথ চলা। এক দিকে শিক্ষা জীবন অপরদিকে ছাত্র রাজনীতি। চলতে থাকে সমান্তরাল ভাবে। তারই ধারাবাহিকতায় ২০১২ সালের ১৩ মে শেকৃবি ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক-১ নির্বাচিত হন তিনি।

রাজনীতিতে দৃঢ় দক্ষতা, সঠিক নেতৃত্ব ও বিচক্ষণতার বদৌলতে ২০১৩ সালের ১১ অক্টোবর শেকৃবি ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। তাঁর সঠিক ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বগুনে শেকৃবি ছাত্রলীগ অতীতের যে কোন সময়ের তুলনায় আরও সংগঠিত ও সুসংহত। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারী তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। ছাত্র রাজনীতির পাশাপাশি তিনি শিক্ষা জীবনেও রেখেছেন কৃতিত্ব। ২০১০ সালে স্নাতক সম্পন্ন করে তিনি এগ্রিকালচারাল ক্যামেস্ট্রি হতে স্নাতকোত্তর করেন। বর্তমানে এগ্রিকালচারাল ক্যামেস্ট্রি ডিপার্মেন্টের অধীনে Ph.D তে অধ্যয়নরত রয়েছেন তিনি।