Saturday, 23 September 2017

ধানের সীথব্লাইট ও ব্লাস্ট রোগ দমনে সেরা-টু ইন ওয়ান (2 in 1)

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:খোলপোড়া রোগ (Sheath blight) ধান ফসলেই এর আক্রমণ। খোল ঝলসানো রোগ হিসেবেও এর পরিচিতি আছে। একপ্রকার ছত্রাক গুটি থেকে এ রোগের উৎপত্তি। সব মৌসুমের ধানেই এ রোগের সংক্রমণ হতে পারে। এখন চলছে আমন ধানের মৌসুম। এসময় ধানক্ষেতে এ রোগের প্রাদুর্ভাব হতে পারে ; এছাড়া ধানক্ষেতে কুশি গজানোর সময় সাধারণত এ রোগ হয়।

পোলট্রির ভাইরাল রোগ প্রতিরোধে-নিউ ক্যাচ

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম, প্রডাক্ট কর্ণার:নিউ ক্যাচ হলো ন্যানো-এনক্যাপসুলেটেড লিকুইড এন্টিভাইরাল সাপ্লিমেন্ট। এতে রয়েছে জিংক, কপার, সেলিনিয়াম, ল্যাকটিক এসিড, সাইট্রিক এসিড, বিটা-গ্লুকান, ফাইটোজেনিক এনক্যাপসুলেশন যা পোলট্রির ভাইরাল রোগ বিশেষত: গামবোরো, রাণীক্ষেত, এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা, ফাউল পক্স ইত্যাদির বিরুদ্ধে কার্যকর।

পোলট্রির যে কোন ধরনের ধকল মোকাবেলায় SMG'র IBC

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:প্রান্তিক খামারীদের জন্য লাভজনক ও জনপ্রিয় হচ্ছে ইনটেনসিভ ফার্মিং। তবে এ ধরনের ফার্মিং-এ স্ট্রেস বা ধকল একটি সাধারণ সমস্যা, যা মুরগীর জন্য হুমকিস্বরুপ। এর ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে ফেলে। যা পরবর্ত্তীতে মুরগীর ব্যাকটেরিয়াল,ফাংগাস,ভাইরাস ও পরজীবি সংক্রমণের সম্ভাবনাকে বাড়িয়ে তোলে এবং মুরগীর উৎপাদন ক্ষমতাও হৃাস পায়।। এ ধরনের পরিস্থিতিতে খামারীরা মারাত্বক ক্ষতির সম্মুখিন হয়।

ধকল প্রতিরোধে গরু.ছাগল,হাঁস,মুরগী ও মৎস্য খামারীদের জন্য VTC ANTISTRESS

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:গরু.ছাগল,হাঁস,মুরগী এবং মাছে বিভিন্ন কারণে ধকল হতে পারে। বিশেষ করে স্থানান্তর, টিকা দেওয়ার আগে ও পরে এবং তাপমাত্রার পরিবর্তনে এদের ধকল বেশ লক্ষনীয়। ধকলের কারণে এদের উৎপাদন হ্রাস থেকে নানা রোগে আক্রান্ত হতে পারে যা পরবর্ত্তীতে মুত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আর এ ধরনের ধকল প্রতিরোধে ভিয়েতনামের খ্যাতনামা Veterco Company Limited থেকে VTC ANTISTRESS নিয়ে এসেছে SMG Animal Health;

পোলট্রির ধকল প্রতিরোধে ইমুনোস্টিম

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম ডেস্ক:‘ধকল’ একটি বহুল ব্যবহৃত শব্দ, বিশেষ করে পোলট্রি খামারীদের জন্য। একদিন বয়সী মুরগীর বাচ্চা হ্যাচারী থেকে ফার্মে নিয়ে আসা মুরগীর জীবনের প্রথম ধকল, টীকা প্রদানের পরবর্তী সময়কাল- ধকলের দ্বিতীয় পর্যায় বলা যেতে পারে। এছাড়াও দেশের বৈরী আবহাওয়ার কারণে তাপমাত্রার তারতম্য জনিত ধকল যেকোন ধরনের রোগ পরবর্তী সময় ও ধকলের আরেকটি পর্যায়। আর ধকল প্রতিরোধে পোলট্রি বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন রকমের ধকল প্রতিরোধক যেমন বিভিন্ন ভিটামিন এবং মিনারেল প্রয়োগের পরামর্শ দিয়ে থাকেন।